• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নতুন বছরেই জেলায় চালু ইলেট্রিক বাস

electric bus
ইলেকট্রিক বাস।

মেট্রো শহরগুলিকে দূষণের সঙ্গে লড়তে ইতিমধ্যেই নেমেছে ই-বাস। সেই ধারা এবার জেলাতেও। সব কিছু ঠিক থাকলে নতুন বছরের শুরু থেকেই পূর্ব মেদিনীপুরের রাস্তায় দেখা মিলবে ই-বাসের।

প্রশাসন সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের অধীনস্থ দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা আগামী জানুয়ারি থেকে জেলায় ই-বাস চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জেলার হলদিয়া শহর এবং হলদিয়া থেকে মেচেদা রুটে মিলিয়ে মোট ৫০টি বাস চালানোর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার পরিচালন পর্ষদের সদস্য তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি শেখ সুফিয়ান বলেন, ‘‘পরিবেশ বান্ধব ইলেকট্রিক বাস চালুর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে হলদিয়া শহরের মধ্যে বিভিন্ন রুটে এবং হলদিয়া-মেচেদা রুটে ওই বাস চালানো হবে। আগামী জানুয়ারি থেকেই পরিষেবা চালুর প্রস্তুতিত চলছে।’’

জেলা পরিবহণ দফতর সূত্রের খবর, পূর্ব মেদিনীপুরে বর্তমানে ১,২০০টির বেশি বেসরকারি বাস চলে। এছাড়া, দিঘা, হলদিয়া, নন্দীগ্রাম, তমলুক ও ময়না থেকে কলকাতা, মেচেদা ও মেদিনীপুর-সহ বিভিন্ন রুটে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার বাসও চলে। সংস্থার হলদিয়া এবং দিঘায় ডিপো রয়েছে। হলদিয়া থেকে বিভিন্ন রুটে ৮০টি এবং দিঘা থেকে ৮০টি বাস চলে। সেই সঙ্গেই হলদিয়া-মেচেদা রুটে জুড়বে নতুন ই-বাসগুলি। বাসগুলির ভাড়া কী রকম হবে, তা এখনও ঠিক হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

শিল্প শহর হলদিয়া ও পর্যটন কেন্দ্র দিঘায় পরিবেশ বান্ধব যানবাহন চলাচলের উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে রাজ্যের পরিবহণ দফতর। তাই বৈদ্যুতিন বাস পরিষেবা চালুর জন্য হলদিয়া এবং দিঘায় বাসের ইলেকট্রিক চার্জিং পয়েন্ট তৈরির ব্যাপারে উদ্যোগী হয়েছে প্রশাসন। হলদিয়ায় দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার বাস ডিপোয় ইতিমধ্যেই চার্জিং পয়েন্ট তৈরির কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। দিঘা ডিপোতেও চার্জিং পয়েন্ট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হচ্ছে। তবে প্রথম ধাপে হলদিয়া শহর ও হলদিয়া- মেচেদা রুটে পরিষেবা চালু হবে খবর।

সরকারিভাবে ই-বাস চালুর উদ্যোগ প্রসঙ্গে পূর্ব মেদিনীপুর ডিসট্রিক্ট বাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক সুকুমার বেরা বলেন, ‘‘পরিবেশে দূষণ কমাতে ই-বাস চালুর উদ্যোগ তো ভাল। আমরা সমর্থন করছি। তবে পরবর্তীকালে বেসরকারি বাস মালিকরা যাতে ওই পরিষেবা চালু করতে পারেন, সে জন্যও রাজ্য সরকারের কাছে আর্জি জানাচ্ছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন