সবংয়ের ক্রোড়দা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহ শিক্ষককে বদলি করার দাবিতে শনিবার বিক্ষোভ দেখালেন অভিভাবকদের একাংশ। 

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক লক্ষ্মীকান্ত হেমব্রম প্রায়ই বিদ্যালয়ে আসেন না। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই অনিয়মিত থাকায় পঠনপাঠনে বিঘ্ন ঘটছে। বিষয়টি বিদ্যালয় পরিদর্শককে জানানো হলেও কাজ হয়নি। তাই শনিবারের বিক্ষোভ। লক্ষ্মীকান্ত হেমব্রম নামের ওই শিক্ষক তৃণমূলের জেলা পরিষদ সদস্য। অভিযোগ অস্বীকার করে তাঁর দাবি, ‘‘আমাকে হেনস্তা করে বিদ্যালয়ের একটি গুদাম ঘরে আটকে রাখা হয়। কাজের প্রয়োজনে আমাকে ছুটি নিতে হয়। সেটা বিদ্যালয়ের পরিদর্শককেও জানিয়েছি।’’ তবে অভিভাবকদের অভিযোগকে সমর্থন জানিয়ে প্রধান শিক্ষক বামাপদ মাইতি বলেন, ‘‘উনি বিদ্যালয়ে অনিয়মিত। তাই বিদ্যালয় পরিচালনা করতে অসুবিধে হয়।’’ 

ওই প্রাথমিক বিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সেখানে বর্তমান ছাত্র সংখ্যা ৮৭ জন। কিন্তু প্রধান শিক্ষককে নিয়ে শিক্ষক সংখ্যা মাত্র ২ জন। লক্ষ্মীকান্ত অনিয়মিত হওয়ায় বেশিরভাগ দিনই প্রধান শিক্ষককেই সব ক্লাস নিতে হয়। পিন্টু দাস, চন্দন গিরির মতো অভিভাবকদের ক্ষোভ, ‘‘পরীক্ষা চললেও বেশিরভাগ দিনই বিদ্যালয়ে আসছেন না একজন শিক্ষক। তাই আমরা ওই শিক্ষকের বদলি ও নতুন শিক্ষক নিয়োগের দাবি জানিয়েছি।’’

সবং পশ্চিম চক্রের অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক দিলীপ আদক বলেন, ‘‘ওই শিক্ষক একজন জনপ্রতিনিধিও বটে। তাই তিনি ছুটি নেন। তবে শিক্ষক কম থাকায় সমস্যা হচ্ছে। আমরা দ্রুত সমস্যার সমাধান করব।’’