• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আক্রান্ত চিকিৎসক, বন্ধ রেল হাসপাতাল

Lockdown
নাকের ডগায়। ঝাড়গ্রাম পাঁচমাথার মোড়ে। ছবি: দেবরাজ ঘোষ

এ বার দুই চিকিৎসক ও এক নার্স করোনা আক্রান্ত হওয়ায় বন্ধ হল রেল হাসপাতাল। বুধবার রাতে খড়্গপুর রেল হাসপাতালের পক্ষ থেকে এমনই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে।

এ দিন রাতে জেলা থেকে আসা রিপোর্টে খড়্গপুর মহকুমার ২৬জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। ওই ২৬জনের মধ্যেই রয়েছেন রেল হাসপাতালের একজন প্রবীণ চিকিৎসক, একজন মহিলা চিকিৎসক ও একজন নার্স। ওই দুই চিকিৎসক জরুরি বিভাগ ছাড়াও কোভিড আইসোলেশন ও ফিভার ক্লিনিকে কাজ করেছেন  বলে হাসপাতাল সূত্রের খবর। এ ছাড়াও রেলের এক কর্মী ও একজন আরপিএফ রয়েছেন। এমন ঘটনাতেই রেল হাসপাতালের জরুরি পরিষেবা ছাড়া সমস্ত পরিষেবা আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এমনকি, নতুন করে কোনও রোগী ভর্তি নেওয়া হবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন রেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। রেলের চিফ মেডিক্যাল সুপারিন্টেনডেন্ট এসএ নাজমি বলেন, “আমাদের দুই চিকিৎসক ও নার্স আক্রান্ত হওয়ায় আপাতত হাসপাতালে রোগী ভর্তি বন্ধ রাখা হচ্ছে। জরুরি পরিষেবা ছাড়া সমস্ত পরিষেবা বন্ধ থাকবে। আশা করছি, দু’দিনের মধ্যে হাসপাতাল জীবাণুমুক্ত করে ফের চালু করা হবে।”  

উদ্বেগ বাড়িয়েছে খড়্গপুর শহরে ফের আক্রান্তের সংখ্যা। রেলের ওই ৫জন ছাড়াও আরও ৪জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ওই চারজনের মধ্যে দু’জন মালঞ্চর বিশালপাড়া এলাকার বাসিন্দা। দিন কয়েক আগে এই বিশালপাড়ার  অবসরপ্রাপ্ত আইআইটি কর্মী আক্রান্ত হয়েছিলেন। নতু করে আক্রান্ত বিশালাপাড়ার ওই দু’জন তাঁর পরিবারের সদস্য। বাকি দু’জন শহরের খরিদা এলাকার বাসিন্দা। এই ঘটনায় খরিদায় নতুন করে দু’টি এলাকা গণ্ডিবদ্ধ করা হচ্ছে।

রাতের রিপোর্টে বাড়ছে আতঙ্ক। বিশেষ করে সালুয়া ইএফআর ক্যাম্পের ক্ষেত্রে। এ দিনও ধারা বজায় রেখে সালুয়া ইএফআর ক্যাম্পে প্রশিক্ষণরত ১৩জন পজ়িটিভ হয়েছেন। ওই ১৩জনের মধ্যে কয়েকজন কনস্টেবলদের প্রশিক্ষক রয়েছেন। এ ছাড়াও বেলদায় ১জন ও কেশিয়াড়িতে ৩জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এই ঘটনায় সালুয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছল ৯৯ জনে।

অতিরিক্ত মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক দেবাশিস পাল বলেন, “খড়্গপুর মহকুমায় সবমিলিয়ে ২৬জন করোনা পজ়িটিভ বলে রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তের ১৩জনই সালুয়ার ইএফআর ক্যাম্পের। এছাড়াও রেল হাসপাতালের দুই চিকিৎসক, নার্স, খড়্গপুরের শহর মিলিয়ে ৯জন রয়েছেন। আক্রান্তের সংস্পর্শে আসা সকলের নমুনা সংগ্রহ হবে।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন