• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জনসংযোগে গিয়ে নেতারা শুনছেন দুর্নীতির অভিযোগ

TMC
গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলছেন তৃণমূল নেতারা। নিজস্ব চিত্র

নেতারা বলতে যাচ্ছেন, সরকারের জনমুখী প্রকল্পের কথা। জনগণ নেতাদের কাছে পেয়ে দুর্নীতির নালিশ করছে।

সামনে ২১ জুলাই। করোনা কালে এবার তৃণমূলের বড় সমাবেশ হচ্ছে না। বদলে হবে দলনেত্রীর ভার্চুয়াল সভা। তার আগে পেট্রোপণ্য, গ্যাস, রেল-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে টানা কয়েকদিন অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে তৃণমূল। এ বার শুরু হয়েছে রাজ্যের জনমুখী প্রকল্পগুলির কথা তুলে ধরে নেতাদের বাড়ি বাড়ি যাওয়া কর্মসূচি। জনসংযোগ মূলক এই কর্মসূচিতেও শাসকদলের নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের পিছু ছাড়ছে না দুর্নীতি প্রসঙ্গ। কোথাও শুনতে হচ্ছে আমপানের ক্ষতিপূরণ নিয়ে দুর্নীতি, তো কোথাও একশো দিনের কাজ প্রকল্পে দুর্নীতির কথা। ক্ষুব্ধ মানুষকে কোনরকমে বুঝিয়ে এবার কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ার পর আসতে হচ্ছে নেতাদের। গড়বেতার তিনটি ব্লক এলাকাতেই নেতাদের জনসংযোগে দুর্নীতির প্রসঙ্গ ওঠায় যারপরনাই ‘অস্বস্তি’তে তৃণমূল। 

রবিবার সকালে পূর্ব নির্ধারিত দলীয় কর্মসূচি হিসাবে গড়বেতার হলদিনালা গ্রামে গিয়ে ৫০ - ৬০ টি বাড়িতে গিয়ে কথা বলেন তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তথা গড়বেতা ১ পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি সেবাব্রত ঘোষ। গ্রামের কয়েকজন তাঁর কাছে এসে দুর্নীতির কথা বলেন। কেউ বলেন, ‘‘ভাঙা ঘরেও ক্ষতিপূরণ পাইনি।’’ কেউ বলেন, ‘‘বারবার বলেও আবাস যোজনায় বাড়ি আসেনি।’’ সেবাব্রতের কথায়, ‘‘গ্রামের মানুষ অনেকে নিজেদের ক্ষোভের কথা বললেও, তৃণমূলের প্রতি তাঁদের সমর্থন যে অটুট তা তাঁরা  জানিয়েছেন।’’ চন্দ্রকোনা রোডের একটি গ্রামে শনিবার এরকমই এক জনসংযোগে বেরিয়ে এক নেতাকে শুনতে হয়েছে, কীভাবে আমপানের টাকা নেতা নেত্রীদের আত্মীয়স্বজনদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে। ওই নেতা বলেন, ‘‘কী করব! শুনতে হচ্ছে। মানুষকে বোঝাচ্ছি মুষ্টিমেয় কয়েকজনের জন্য দলের বদনাম হচ্ছে।’’

 জনসংযোগে বেরিয়ে দুর্নীতির কথা শুনতে হচ্ছে বিধায়কদেরও। জেলার এক বিধায়ক বলেন, ‘‘মানুষের কাছ থেকে শুনতে হচ্ছে কীভাবে আমপানের ক্ষতিপূরণের টাকা  নয়ছয় হয়েছে। একশো দিনের কাজ প্রকল্পেও দুর্নীতির কথা বলছেন অনেকে।’’  শালবনির বিধায়ক শ্রীকান্ত মাহাতো বলেন, ‘‘মানুষের কাছ থেকে অনেক কথাই শুনছি, বোঝাচ্ছি।’’ জনসংযোগে দুর্নীতির কথা উঠছে বলে মানছেন গড়বেতার বিধায়ক আশিস চক্রবর্তীও। তিনি বলেন, ‘‘মানুষ দলের কর্মীদের দুর্নীতির কথা  তুলছেন, আমরা তাঁদের বলছি এসবের বিরুদ্ধে  কড়া ব্যবস্থা নেবে দল।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন