জিজ্ঞাসাবাদ শেষে হেঁটে প্রচারে ভারতী
জেরা শেষে জানায়, শনিবার ফের  জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। ভারতী সেই সংক্রান্ত নোটিস নিতে অস্বীকার করেন।
CID Notice

ভারতীর দাসপুরের বাড়ির দরজায় সিআইডির নোটিস। নিজস্ব চিত্র

শুক্রবার ঘাটালে রোড শো করেছিলেন অভিনেতা প্রার্থী দেব। শনিবারের ঘাটাল দেখল প্রাক্তন আইপিএস ভারতীর জনসংযোগ। এ দিন চড়া রোদ সত্ত্বেও বিজেপি কর্মীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। 

শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘাটাল পুর এলারার ১৭টি ওয়ার্ডের অলি-গলি ঘুরেছিলেন তৃণমূল প্রার্থী দীপক অধিকারী ওরফে দেব। অন্য দিকে, শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দাসপুরের বেলতলা ঘেঁষা কলমিজোড়ের বাড়িতে ভারতীকে সোনা প্রতরণা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি। জেরা শেষে জানায়, শনিবার ফের  জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। ভারতী সেই সংক্রান্ত নোটিস নিতে অস্বীকার করেন। তারপরে ২২ এপ্রিল, সোমবার ফের জিজ্ঞাসাবাদের দিন জানিয়ে  ভারতীর দাসপুরের বাড়িতে নোটিস সাঁটিয়ে দিয়ে আসে সিআইডি। সিআইডির আধিকারিকেরা এখন দাসপুরেই রয়েছেন। ভারতীর বক্তব্য, “বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টে জানানো হয়েছে। আইনজীবীর সঙ্গে কথা না বলে মুখোমুখি হবো না।”

তবে জেরা শেষ হওয়ার পরে শুক্রবার রাতেই প্রার্থীর বাড়ি থেকে কলমিজোড় বাজার এবং সেখান থেকে বেলতলা বাজার পর্যন্ত মিছিল করেন ভারতী। শনিবার সকাল ১১টা নাগাদ ঘাটাল শহরে ঢোকেন ভারতী। তারপরেই শুরু হয় প্রচার। শহরের কলেজ মোড় (পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ড) থেকে পায়ে হেঁটে প্রচার শুরু করেন প্রার্থী। বাড়ি বাড়ি জনসংযোগ করেন। প্রচারে বেরিয়ে মানুষের সমস্যার কথা  ভিডিয়ো করার পাশাপাশি নথিভুক্তও করতে দেখা যায় তাঁকে। এ দিন খোশমেজাজেই ছিলেন ভারতী। প্রচারের ফাঁকে আলোচনা করেন কর্মীদের সঙ্গে। শহরের কৃষ্ণনগরে এক কালীমন্দিরে পুজো দিয়ে প্রসাদ বিতরণ করা হয়। সিআইডির জিজ্ঞাসাবাদ প্রসঙ্গে ভারতীর দাবি, ‘‘সিআইডি দিয়ে ভারতীকে দমানো যাবে না। প্রচার আটকাতেও পারবে না।”