মনোনয়ন দিতে প্রার্থীর বাহন গরুর গাড়ি
এ বার মনোনয়নে প্রার্থীদের কেউ হুডখোলা জিপে করে মনোনয়নে এসেছেন। কেউ মিছিলে পায়ে হেঁটে মনোনয়নে এসেছেন। 
congress candidate

গরুর গাড়িতে এলেন কংগ্রেস প্রার্থী। ছবি: সৌমেশ্বর মণ্ডল

হুডখোলা জিপে চেপে কিংবা মিছিলে পায়ে হেঁটে নয়, মনোনয়ন করতে প্রার্থী এলেন গরুর গাড়িতে করে। সোমবার এমনই ছবি দেখল মেদিনীপুর। এদিন মেদিনীপুরে অতিরিক্ত জেলাশাসক (সাধারণ) প্রণব বিশ্বাসের দফতরে মনোনয়ন করতে যান ঘাটালের কংগ্রেস প্রার্থী মহম্মদ সইফুল। তিনি গরুর গাড়িতে করেই কালেক্টরেটের সামনে আসেন। সঙ্গে ছিলেন কংগ্রেসের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সভাপতি সৌমেন খান। 

এ দিন দুপুরে মেদিনীপুরে জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ের সামনে থেকে এক মিছিল শুরু হয়। এই মিছিলের মধ্যেই ছিল দলীয় পতাকায় সাজানো ওই গরুর গাড়ি। এ বার মনোনয়নে প্রার্থীদের কেউ হুডখোলা জিপে করে মনোনয়নে এসেছেন। কেউ মিছিলে পায়ে হেঁটে মনোনয়নে এসেছেন। 

এই প্রথম মনোনয়নে বাহন পাল্টে মেদিনীপুরে কার্যত এক নজির তৈরি করলেন ঘাটালের কংগ্রেস প্রার্থী। একেবারে গরুর গাড়িতে চালকের ঠিক পাশে বসেছিলেন সইফুল। শহরের পাকা রাস্তা ধরে কালেক্টরেটের দিকে চলতে থাকে গরুর গাড়ি। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

গরুর গাড়ি থেকেই পথচলতি মানুষের উদ্দেশে হাতজোড় করে ‘নমস্কার’ করছিলেন প্রার্থী। অবাক চোখে তাকিয়ে থাকেন পথচলতি মানুষজন। মনোনয়নে গরুর গাড়ি কেন? বিজেপিকে বিঁধে ঘাটালের কংগ্রেস প্রার্থীর মন্তব্য, ‘‘পেট্রোলের যা দাম! এখন গরুর গাড়িই ভাল!’’ পরে মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরে সইফুল বলছিলেন, ‘‘গণতন্ত্রের বড় উৎসব ভোট। এদিন সহকর্মীরা এক বর্ণময় মিছিলের আয়োজন করেছিলেন। তাঁরাও চেয়েছিলেন, মনোনয়নে গরুর গাড়ি রাখতে।’’ ঘাটালের মতো আসন থেকে কংগ্রেসের জেতা সম্ভব? সইফুলের জবাব, ‘‘কেন নয়? প্রচারে বেরিয়ে মানুষের দারুণ সাড়া পাচ্ছি।’’