প্রার্থী ছাড়াই রোড শো নুসরতের
দাঁতন ২ ব্লকের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে ভাল প্রভাব রয়েছে বিজেপির। দাঁতন বিধানসভা ক্ষেত্রের সাবড়া, হরিপুর, জেনকাপুর, তুরকা এলাকায় পদ্মের বাড়বাড়ন্ত চিন্তায় ফেলেছে তৃণমূলকে। তাই কি তারকা এনে প্রচার ?
Nusrat Jahan

রোড শোয়ে তারকা। দাঁতনের সাবড়ায় বৃহস্পতিবার। ছবি: দেবরাজ ঘোষ

যাঁর জন্য প্রচার সেই প্রার্থী গরহাজির। নেই এলাকার বিধায়কও। এমন অবস্থাতেই মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত দাঁতনে প্রচারে এলেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী নুসরত জাহান। সঙ্গে ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। 

এ দিন দাঁতন ২ ব্লকের সাবড়া এলাকায় মেদিনীপুরের তৃণমূল প্রার্থী মানস ভুঁইয়ার সমর্থনে রোড শো করেন নুসরত। চন্দ্রিমা ছাড়াও তারকার সঙ্গে ছিলেন তৃণমূলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সভাপতি অজিত মাইতি, যুব সভাপতি রমাপ্রসাদ গিরি, জেলা পরিষদ সদস্য শৈবাল গিরি। এ দিন সাবড়া বাজার থেকে শুরু হয় রোড শো। তারপর দোস্তানিয়া, ইসলাম বাজার ঘুরে সাবড়াতে শেষ হয়। হুড খোলা গাড়িতে হাত নাড়তে নাড়তে যান নুসরত। রাস্তার দুপাশে ভিড় ছিল যথেষ্ট। বিশেষ করে মহিলাদের উপস্থিতি ছিল নজরকাড়া। তাঁদের জোড়া ফুলে ভোট দেওয়ার আবেদন জানান নুসরত। 

মানস বলেন,  ‘‘নারায়ণগড়ে প্রচার আগে থেকেই এই কর্মসূচি ঠিক ছিল। তাই যেতে পারিনি।’’ আর স্থানীয় বিধায়ক বিক্রমচন্দ্র প্রধানের বক্তব্য, ‘‘দাঁতন সংলগ্ন ওড়িশার জলেশ্বরে তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে ছিলাম।’’ সামনের সারিতে দেখা যায়নি দাঁতন ২ ব্লক তৃণমূলের সভাপতি দুর্গেশ নন্দকে। কারণ না জানালেও দুর্গেশ মানছেন, ‘‘সঙ্গে ছিলাম, তবে সামনে ছিলাম না।’’ 

দাঁতন ২ ব্লকের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে ভাল প্রভাব রয়েছে বিজেপির। দাঁতন বিধানসভা ক্ষেত্রের সাবড়া, হরিপুর, জেনকাপুর, তুরকা এলাকায় পদ্মের বাড়বাড়ন্ত চিন্তায় ফেলেছে তৃণমূলকে। তাই কি তারকা এনে প্রচার ? এলাকার তৃণমূল নেতা, জেলা পরিষদ সদস্য শৈবাল গিরি বলেন, ‘‘বিজেপিকে আমরাই রাজনৈতিক ভাবে মোকাবিলা করব। সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় সভা করলে তেমন লোক পাওয়া যায় না। তাই রোড শো করা হল। পরে প্রার্থীকে রেখে সভা করা হবে।’’ ব্লকে তৃণমূলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলেই কি বিজেপি বাড়ছে? এ বার শৈবালের জবাব, ‘‘কয়েকটি অঞ্চলে বিজেপির সামান্য প্রভাব থাকলেও এ সব অঞ্চলে আমরাই লিড দেব। কোনও শক্তি রুখতে পারবে না।’’ এ দিন সাবড়ার পরে কেশিয়াড়ির খাজরাতে সভা করেন নুসরত ও চন্দ্রিমা।

আজ, শুক্রবার আবার গোয়ালতোড়ের জোগারডাঙায় ঝাড়গ্রামের তৃণমূল প্রার্থী বিরবাহা সরেনের সমর্থনে সভা করার কথা ছিল নুসরতের। তবে অভিনেত্রীর সময়াভাবে সেই সভা বাতিল হয়েছে। অথচ নুসরতের সভার জন্য জোগারডাঙা অঞ্চলে দলের ব্লক নেতৃত্ব এলাকা পরিদর্শন করেছিলেন। প্রশাসনিক স্তরেও তৎপরতা শুরু হয়েছিল। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবারই দলের শীর্ষস্তর থেকে খবর আসে সভা বাতিলের। স্থানীয় বিধায়ক আশিস চক্রবর্তী বলেন, ‘‘শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলে এই সভার দিনক্ষণ পরে ঠিক করা হবে।’’ অভিনেত্রীর সভা বাতিল হওয়ায় কিছুটা হতাশ স্থানীয় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকেরা। তারই মধ্যে বৃহষ্পতিবার গোয়ালতোড়ের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি বাড়ি প্রচার সারেন তৃণমূল কর্মীরা। প্রচার চলে গড়বেতা ১ ব্লক এলাকাতেও। 

চড়া রোদ উপেক্ষা করে প্রচারে শামিল হয় বিজেপিও। গড়বেতা স্টেশন চত্বরে ঝাড়গ্রাম কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কুনার হেমব্রমের সমর্থনে পথসভা হয়েছে।