• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কর্মী সুরক্ষায় গাফিলতি, পেট্রোকেমের বিরুদ্ধে মামলা রাজ্যের

Haldia Petrochemicals
হলদিয়া পেট্রোকেমিক্যালস। —ফাইল চিত্র

Advertisement

পেট্রোকেমিক্যালসে অগ্নিকাণ্ডে চারজনে মৃত্যুর ঘটনায় কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সুরক্ষা বিধি নিয়ে গাফিলতির অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করল রাজ্য। উল্লেখ্য, গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর হলদিয়া পেট্রোকেমে অগ্নিকান্ডের জেরে এক আধিকারিক-সহ ৪ জন কর্মীর মৃত্যু হয়। জখম হয়েছিলেন ১৩ জন। ওই দিন ন্যাপথা ক্র্যাকার ইউনিটে মারাত্মক বিস্ফোরণে জখম হন কর্তব্যরত কর্মীরা। 

ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন থেকে পাইপ লাইনের মাধ্যমে ন্যাপথা নিজেদের প্ল্যান্টে এনে তাপের উপস্থিতিতে অনুঘটকের সহযোগিতায় সেটিকে ভেঙে পলিমার তৈরি করা হয় হলদিয়া পেট্রোকেমের এই  ইউনিটে। দুর্ঘটনার দিন ওই ইউনিটের একটি ভালভে যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে। নিয়মমতো ত্রুটি চিহ্নিত করে মেরামতির কাজ শুরু হয়েছিল। কাজের সময় সংশ্লিষ্ট ভাল্ভ-এর সঙ্গে লোহার পাইপ লাইনের সংঘর্ষে তৈরি হয় স্ফুলিঙ্গ। চোখের নিমেষে তা বড় অগ্নিকাণ্ডের আকার ধারণ করে। মুহূর্তের মধ্যে আগুনে ঝলসে যায় সেখানে কর্তব্যরত কর্মীদের শরীর। শেষ পর্যন্ত ১৪টি অগ্নিনির্বাপণ ইঞ্জিনের মাধ্যমে ঘণ্টাতিনেকের চেষ্টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। আহত ১৩ জন কর্মীর দ্রুত চিকিৎসার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে হলদিয়া থেকে কলকাতা পর্যন্ত  গ্রিন করিডর তৈরি করে কলকাতায় পাঠানো হয়। আহতদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। মারা গিয়েছেন চারজন। 

দুর্ঘটনার জেরে কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, কোনওরকম সুরক্ষা ব্যবস্থা বা নিয়ম বিধি ছাড়াই কর্মীদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এই কাজ করানো হচ্ছিল। এমনকী জীবনের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও উপযুক্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করে ভয় দেখিয়ে কর্মীদের কাজ করতে বাধ্য করা হত বলে অভিযোগ। ঘটনার তদন্তে নেমে কারখানা পরিদর্শক কার্তিক চন্দ্র মণ্ডল কারখানা কর্তৃপক্ষের গাফিলতির পক্ষে একাধিক কারণ দেখেন। তার ভিত্তিতে গত ১৫ নভেম্বর রাজ্য সরকারের তরফে ‘ফ্যাক্টরি অ্যাক্ট’-এর ১৯৪৮ এর ৯২ ধারা অনুযায়ী কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সুরক্ষা বিধি নিয়ে গাফিলতির অভিযোগ এনে হলদিয়া মহকুমা আদালতে সরকারি আইনজীবী ভি কে রামের  সহযোগিতায়  মামলা দায়ের করা হয়।

পেট্রোকেমে অগ্নিকাণ্ডে অভিযোগের তির উঠেছে প্ল্যান্ট হেড অশোক কুমার ঘোষ এবং পেট্রোকেমের কর্ণধার শুভাসেন্দু চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। দু’জনের বিরুদ্ধেই মামলা রুজু করা হয়েছে। হলদিয়া মহকুমা আদালতের সরকারি আইনজীবী ভি কে রাম বলেন, ‘‘কারখানায় দুর্ঘটনার পর আইন অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে।’’

এই বিষয়ে অশোক বলেন, ‘‘আমি কিছু জানি না। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলুন।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন