• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফিরেই ছন্দে ভারতী, গড়বেতায় ওসি বদল

ভোট-পর্ব মিটতেই তাঁকে দায়িত্বে ফিরিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। সেই ভারতী ঘোষ ফের পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা সুপারের দায়িত্ব নিয়েই চেনা ছন্দে ব্যাটিং শুরু করলেন। তাঁর নির্দেশে রদবদল হল গড়বেতার ওসি পদে।

গড়বেতা থানার ওসি শুকদেব মাইতিকে মেদিনীপুর পুলিশ লাইনে ‘ক্লোজ’ করা হয়েছে। নতুন ওসি হয়েছেন দয়াময় মাঝি। জেলা পুলিশ সূত্রে খবর, দয়াময়বাবু ভারতীদেবীর ‘গুড বুকে’ থাকা অফিসার। দীর্ঘদিন কেশপুর থানার ওসি ছিলেন। পরে চন্দ্রকোনার ওসি হন। ভোটের আগে অবশ্য দয়াময়বাবুকে সরিয়ে মেদিনীপুর পুলিশ লাইনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। শাসকের প্রতি ‘পক্ষপাতে’র অভিযোগে ২০১৪-এর লোকসভা ভোটের আগে কমিশন কেশপুর থানার ওসি-র দায়িত্ব থেকে সরিয়েছিল এই দয়াময়বাবুকে। এ বার যাতে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় সে জন্য আগেভাগেই চন্দ্রকোনা থানা থেকে তাঁকে সরিয়ে দেয় জেলা পুলিশ। তবে ভারতীদেবী জেলায় ফিরতেই দয়াময়বাবু ওসি পদ ফেরত পেলেন। ফিরলেন গড়বেতা থানায়।

অন্য দিকে শুকদেববাবুকে ভোটের আগেই গড়বেতার ওসি করা হয়েছিল। তাঁরই স্থলাভিষিক্ত হলেন দয়াময়বাবু। জেলার পুলিশের এক সূত্রে খবর, গড়বেতা থানা এলাকায় সাম্প্রতিক একটি গোলমালের সূত্রেই পছন্দের ওসি-কে ফিরিয়ে আনলেন ভারতীদেবী। ওই সূত্রের মতে, হয়তো পুলিশ সুপারের মনে হয়েছে তাঁর নির্দেশ যথাযথ ভাবে রূপায়িত করতে এই ‘কাছের লোক’কেই দরকার। যদিও এ নিয়ে ভারতীদেবী কিছু বলতে চাননি। তিনি শুধু বলেন, ‘‘এটা প্রশাসনিক ব্যাপার।’’

গড়বেতার ওসি পদে রদবদলের পিছনে কী কোনও কারণ রয়েছে? গড়বেতার তৃণমূল বিধায়ক আশিস চক্রবর্তীর জবাব, ‘‘এটা পুলিশের ব্যাপার। আমি কী বলব!’’

জেলা পুলিশ সূত্রে খবর, পুরনো দায়িত্বে ফিরেই পুলিশ সুপার কাছের লোকেদের পুরনো পদে বহাল শুরু করেছেন। ইতিমধ্যে সবং থানার ওসিও বদলি হয়েছে। শুভাশিস দত্তের জায়গায় ফিরে এসেছেন ননীগোপাল দত্ত। এই সময়ের মধ্যে হাইকোর্টে মামলাও করেছেন ভারতীদেবী। ভোট-পর্বে বিরোধীরা অভিযোগ করেছিল, এই আইপিএস শাসক দলকে
জেতাতে এক্তিয়ার ভেঙে কাজ করেছেন। সেই সব অভিযোগের প্রাথমিক তদন্ত করে নির্বাচন কমিশন কী পেয়েছে, তা জানতে চেয়েই হাইকোর্টে মামলা করেছেন ভারতীদেবী। মামলাটি বিচারাধীন।

ভারতীদেবীর সঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুরের যে সব পদস্থ পুলিশ আধিকারিক দীর্ঘদিন কাজ করেছেন, তাঁদের অনেকেই এখন আর জেলায় নেই। যেমন অংশুমান সাহা, সন্তোষ মণ্ডল, মনোরঞ্জন ঘোষ, সৌতম বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। ভোটের আগে আগে জেলা থেকে চলে যাওয়া পুলিশ অফিসারদের একাংশ ভারতীদেবীর ‘গুড বুকে’ থাকা অফিসার হিসেবেই পরিচিত। এই সব আধিকারিকরাও কি এরপর একে একে জেলায় ফিরে আসবেন, এ নিয়ে পুলিশের একাংশে জল্পনা শুরু হয়েছে। আর গড়বেতার ওসি পদে রদবদল সেই জল্পনা উস্কে দিয়েছে। জেলা পুলিশের এক কর্তাও বলছেন, “সবে সরকার গঠন হয়েছে। কিছু দিন পরে কয়েকটি পদে রদবদল হলেও হতে পারে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন