রাতের অন্ধকারে জঙ্গলে লুকিয়ে থেকে দু’জন দুষ্কৃতীকে ধরল পুলিশ। গড়বেতার ভাটমারা জঙ্গলে শুক্রবার রাতের ঘটনা।
পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম মুগলেসুর মল্লিক ও খোকন খান। দু’জনেরই বাড়ি গড়বেতার ছোট আঙারিয়া গ্রামে। তাদের থেকে একটি ওয়ান শটার, করাত, কুড়ুল উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃত মুগলেসুর তৃণমূল কর্মী ওসমান মণ্ডল খুনে  মূল অভিযুক্ত।

২০১৭ সালের ১৫ জানুয়ারি গড়বেতার চমকাইতলার একটি হিমঘরে খুন হয়ে যান ছোট আঙারিয়া গ্রামের তৃণমূল কর্মী বক্তার মণ্ডলের ভাই ওসমান। বেশ কয়েকটি বড় ডাকাতির ঘটনাতেও মুগলেসুরকে খুঁজছিল পুলিশ। ওসমানের স্ত্রী আসিয়া বিবি ও দাদা বক্তার মণ্ডল বলেন, ‘‘ওকে চরম শাস্তি দিলে তবেই শান্তি হবে।’’

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গড়বেতা-সহ পার্শ্ববর্তী বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর, জয়পুর ও হুগলির গোঘাট থানায় মুগলেসুর মল্লিকের নামে বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কয়েকটি থানাতেও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। কয়েকদিন আগেই গড়বেতা এলাকায় পুলিশকে ধুলো দিয়ে পালিয়েছিল মুগলেসুর। তবে শুক্রবার রাতে অবশ্য পালানোর সুযোগ পায়নি সে। ওই রাতে গড়বেতার ধাদিকার কাছে ভাটমারার জঙ্গলে কয়েকজন শাগরেদকে নিয়ে জড়ো হয় মুগলেসুর। উদ্দেশ্য ছিল জঙ্গল সংলগ্ন কুড়ুল ও করাত দিয়ে গাছ কেটে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কে ফেলে গাড়ি থামিয়ে ডাকাতি করা। 
শনিবার ধৃতদের গড়বেতা আদালতে তোলা হয়।  মুগলেসুরের ৫ দিনের পুলিশি হেফাজত ও খোকনের জেল হেফাজত হয়েছে।