অসমে কাজে গিয়ে মৃত দুই নির্মাণ শ্রমিকের দেহ সোমবারও এসে পৌঁছল না পাঁশকুড়ায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব নির্ধারিত সূচী অনুযায়ী পাঁশকুড়া থানা থেকে একটি দল মৃত শেখ ইদ্রিস ও শেখ মহম্মদের দেহ আনতে এ দিন কলকাতা বিমান বন্দরের উদ্দেশ্যে রাওনা দেয়। তাদের সঙ্গে ছিলেন কোলাঘাট পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি রাজকুমার কুণ্ডু, পাঁশকুড়া-১ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি কুরবান শা এবং পাঁশকুড়া পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সাইদুল ইসলাম খান। তবে রাস্তাতেই তাঁরা জানতে পারেন দেহ দুটি আনার জন্য যে সরকারি প্রক্রিয়া রয়েছে তা শেষ করতে দেরি হওয়ায় নির্দিষ্ট বিমানে দেহদু’টি তোলা যায়নি। পুলিশ সূত্রে খবর আজ, মঙ্গলবার সকাল আটটা নাগাদ গুয়াহাটি বিমান বন্দর থেকে দেহ দুটি বিমানে তুলে দেওয়া হবে কলকাতায় পাঠানোর জন্য।

এ দিন অসমে পাঁশকুড়ার দুই নির্মাণ কর্মীর মৃত্যুতে খুনের অভিযোগ ওঠায় মেচগ্রাম মোড় আন্ডার পাস অবরোধ করে একটি সংখ্যালঘু সংগঠন। বিকেল সাড়ে চারটা থেকে অবরোধ শুরু হয়। মিনিট কুড়ির অবরোধে ওই এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পাঁশকুড়ার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে অবরোধকারীদের বুঝিয়ে অবরোধ তোলে।