• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

৫১টি সাপ পিটিয়ে মারল গ্রামবাসী

snakes
পড়ে রয়েছে মৃত সাপ।

পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়েছিল দোকানঘর। সেখানে পাওয়া গেল ৫১টি বিষধর সাপ। সবক’টি সাপকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয়দের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি নন্দকুমার ব্লকের  কুমোরআড়া গ্রামের।

স্থানীয় সূত্রের খবর, কুমোরআড়ায় প্রাথমিক স্কুলের পাশে একটি দোকান রয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা লক্ষ্মণচন্দ্র মণ্ডলের। দোকানটি প্রায় ১০-১৫ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। শুক্রবার দুপুরে ওই দোকান সংলগ্ন এলাকায় একটি কেউটে সাপ দেখতে পান স্থানীয় এক বাসিন্দা। স্থানীয়েরা সাপটিকে মারতে গিয়ে দেখতে পান বন্ধ দোকানের দেওয়ালের গর্তে  থেকে আরও সাপ বেরিয়ে আসছে। এরপর স্থানীয়েরা জড়ো হয়ে দোকানের দেওয়াল ভেঙে ফেলেন। তখন সেখানে কেউটে ও খরিস মিলিয়ে ৫১টি সাপ এবং কয়েকশো ডিম পাওয়া যায়। 

গ্রামবাসী সাপগুলিকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে, বল্লমে খুঁচিয়ে মারে ফেলেন। নষ্ট করা হয় ডিমগুলিও। এক এলাকাবাসী বলেন, ‘‘এ দিন দুপুর ২টোর দিকে বড় মাপের একটি কেউটে সাপ ওই দোকান থেকে বেরিয়ে আসছিল। সাপটিকে মারতে যায় গিয়ে দেখি গর্তের ভিতর থেকে একের পর এক বিষধর সাপ বেরিয়ে আসছে। কয়েকশো সাপের ডিম রয়েছে।’’

ওই গ্রামের কয়েক কিলোমিটারের মধ্যেই রয়েছে বন দফতরের অফিস। এতগুলি সাপ এভাবে মারা হলেও স্থানীয় পঞ্চায়েত বা বন দফতর কোনও পদক্ষেপ করেনি বলে অভিযোগ। এ ব্যাপারে পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা বনাধিকারিক স্বাগতা দাস বলেন, ‘‘এত সাপ পাওয়ার বিষয়ে বন দফতরকে কেউ জানাননি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন