আগেই দেশের তিনটি স্টেশন পরিচালনার দায়িত্ব মহিলা রেলকর্মীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এ বার রাজ্যে প্রথম পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার হিজলি স্টেশনের যাবতীয় কাজও পরিচালনা করবেন মহিলারা। আজ, বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক নারী দিবসে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের খড়্গপুর-খুরদা রোড শাখার হিজলি স্টেশনের দায়িত্ব মহিলা কর্মীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ থেকে টিকিট বিক্রির মতো হিজলি স্টেশনের যাবতীয় কাজ করবেন মহিলারাই।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, নারী শক্তিকে সম্মান জানাতে মাস দু’য়েক আগেই রেলের প্রতিটি জোনে একটি করে মহিলা নিয়ন্ত্রিত স্টেশন চালুর নির্দেশ দেওয়া হয়। ইতিমধ্যেই অন্ধ্রপ্রদেশের চন্দ্রগিরি, মহারাষ্ট্রের মাতুঙ্গা ও রাজস্থানের গাঁধীনগর স্টেশন মহিলা কর্মীদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, হিজলি স্টেশন পরিচালনার জন্য ২৫ জন মহিলা রেল কর্মী নিয়োগ করা হবে। এর মধ্যে দু’জন স্টেশন ম্যানেজার ও একজন স্টেশন মাস্টার। বাকি কর্মীদের স্টেশনের বিভিন্ন কাজে নিয়োগ করা হবে। সদ্য গিরিময়দান স্টেশন থেকে হিজলিতে কাজে যোগ দেওয়া কমার্শিয়াল সুপারভাইজার রেণুকা হাঁসদা বলছেন, “রাজ্যের প্রথম মহিলা স্টেশনের একজন কর্মী হতে পেরে আমি গর্বিত।” রেলের সিনিয়র ডিভিশনাল কমার্শিয়াল ম্যানেজার কুলদীপ তিওয়ারি বলেন, “দক্ষিণ-পূর্ব রেল প্রথম আমাদের ডিভিশনের হিজলি স্টেশন মহিলা নিয়ন্ত্রিত হতে চলেছে। এটা আমাদের কাছে খুশির খবর।’’