• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুলিশ সেজে অপহরণ, ধৃত তিন

1
আদালতে তোলা হচ্ছে ধৃতকে। কৃষ্ণনগরে। নিজস্ব চিত্র

এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর পুলিশের নাম ভাঙিয়ে মুক্তিপণ চাওয়ার অভিযোগ উঠল কালীগঞ্জের বড় চাঁদঘর এলাকায় দক্ষিণপাড়ায়। 

ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ অপহৃতকে উদ্ধারের পাশাপাশি তিন জনকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতদের মধ্যে রয়েছে মুজিবুর মল্লিক। সে নাকাশিপাড়ার বিক্রমপুরের পঞ্চায়েত প্রধান রশিদ শেখের ভাই। অন্য দুই ধৃত হল হাসিবুর শেখ ও নাজমুল মল্লিক। তারা কালীগঞ্জের জানকিনগরের বাসিন্দা। তিন জনকেই শুক্রবার কৃষ্ণনগর আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাদের তিন দিনের পুলিশ হেফাজতে নির্দেশ দিয়েছেন। 

পুলিশ সূত্রের খবর, ভুসি মালের ব্যবসায়ী ঔরঙ্গজেব শেখ বুধবার বিকেল থেকে নিখোঁজ হন। তাঁর স্ত্রী সরবানু বিবি জানান, রাত ন’টা নাগাদ ঔরঙ্গজেবের নম্বর থেকে ফোন আসে। ঔরঙ্গজেব তাঁকে বলেন, ‘‘আমাকে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাঁচানোর জন্য দশ লক্ষ টাকা নিয়ে চলে এসে নাকাশিপাড়ায়।’’ এর পরেই ঔরঙ্গজেবের থেকে ফোন কেড়ে নিয়ে এক জন নিজেকে পুলিশ বলে পরিচয় দিয়ে জানান, ঔরঙ্গজেবের কাছ থেকে ২৫০ গ্রাম হেরোইন পাওয়া গিয়েছে। ওঁকে ছাড়াতে হলে দশ লক্ষ টাকা নিয়ে কৃষ্ণনগরে আসতে হবে। তার পর ফোন কেটে দেওয়া হয়। 

ঔরঙ্গজেবের পরিবারের তরফে পলাশি ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঔরঙ্গজেবের মোবাইলের টাওয়ারের লোকেশন দেখে নাকাশিপাড়ার পুলিশ কাঠালবেড়িয়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে ওই ব্যবসায়ী ও দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে। অন্য এক ষড়যন্ত্রকারী মুজিবুর মল্লিককে আড়ংহাটা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, এর পিছনে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা বা ঔরঙ্গজেবকেই অপহরণকারীরা টার্গেট করল কেন, সবকিছু তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন