• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শোকস্তব্ধ সাহেবরামপুর

Jawan's Wife
নিহত জওয়ানের স্ত্রী। নিজস্ব চিত্র

বছর সাতেক আগে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়ে সংসারের হাল ধরেছিল জলঙ্গি থানার সাহেবরামপুর এলাকার যুবক রানা মণ্ডল। তাঁর সৌজন্যে সংসারের হাল ফিরেছিল, একটু একটু করে গড়ে উঠেছিল দোতলা পাকাবাড়ি। জোওয়ানের মা সানোয়ারা বিবি স্বপ্ন দেখেছিলেন নতুন সেই বাড়িতেই এ বার কাশ্মীর থেকে ফিরে এসে স্বস্তিতে ঘুমাবে তাঁর সন্তান। কিন্তু আমপানের মতোই বুধবার সন্ধ্যায় তার উপর দিয়ে বয়ে যায় এক ঝড়। কাশ্মীরে থাকা ছেলে রানা জঙ্গিদের গুলিতে চিরদিনের মতো ঘুমিয়ে গিয়েছে, সে খবর পৌঁছতে গোটা এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবক কাশ্মীরে বিএসএফের ৩৭ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ান ছিল, বুধবার জঙ্গির গুলিতে নিহত হয়েছে।

স্ত্রী জেসমিনার কোলে ছয় মাসের সন্তান, মাঝে মাঝেই মূর্চ্ছা যাচ্ছেন জেসমিনা। ছোট্ট শিশু কিছুই বুঝে উঠতে পারছে না, কী ঝড় বয়ে গিয়েছে তার পরিবারের উপর দিয়ে। কান্নায় ভেঙে পড়েছেন জওয়ানের মা সানোয়ারা বিবি। বারবারই বলছেন, "ছেলে অনেক কষ্ট করে বাড়ি তৈরি করল ইদের পরেই কথা ছিল ঘরে ফেরার। সেই স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল।’’

রানা ২০১৩ সালে যোগ দিয়েছিলেন সেনাবাহিনীতে। প্রথমে কাশ্মীরে কর্মরত থাকলেও তার পরে বেশ কয়েক বছর অন্য রাজ্যে ছিলেন রানা। ১৮ মাস আগে আবারও তার পোস্টিং হয় সেই কাশ্মীরে। তাঁর পরিবারের দাবি, কাশ্মীর নিয়ে অনেক ভয়ানক গল্প শুনেছি। কিন্তু ঘরের ছেলেরই এমন হবে, তা ভাবেননি। পরিবারের দাবি, বিএসএফের পক্ষ থেকে তাদের বুধবার সন্ধ্যায় জানানো হয়েছে ঘটনার কথা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন