• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দশ বছর পর বাড়ি ফিরলেন আফজল

Domkol
পরিজনদের সঙ্গে আফজল (মাঝখানে)। নিজস্ব চিত্র

মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। ১০ বছর পর বাড়ি ফিরে এলেন তিনি। ডোমকলের ইসলামটুলির ঘটনা। আফজল মণ্ডল নামে ওই প্রৌঢ় বাড়ি ফিরে আসায় খুশির হাওয়া তাঁর বাড়িতে।

 স্থানীয় সূত্রের খবর, ১০ বছর আগে পাড়ার দোকানে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েছিলেন আফজল। তারপর আর তিনি বাড়িতে ফিরে আসেননি। বাড়ির লোকজন বিস্তর খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর সন্ধান পাননি। পরিবারের সদস্য, আত্মীয়-স্বজন, পড়শিরা ধরে নিয়েছিলেন, আফজল আর বেঁচে নেই। ফলে তাঁকে ফিরে পেয়ে গোটা গ্রাম খুশিতে ডগমগ। বুধবার আফজল ফেরার পর আত্মীয়-স্বজনরাও ভিড় করেন তাঁদের বাড়িতে। পুরনো মুখগুলোকে চিনতে অবশ্য একটুও সময় নেননি ওই প্রৌঢ়। তাঁদের দেখে আফজল মুচকি হেসেছেন। পরিবার সূত্রে জানা গেল, এই ক’ বছরের আফজল অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তবে মানসিক ভারসাম্য পুরোপুরি ফিরতে আরও কিছুটা সময় লাগবে। কিন্তু কীভাবে সন্ধান মিলল আফজলের? ওই প্রৌঢ়ের ভাইপো সাদ্দাম মণ্ডলের কথায়, ‘‘আমরা হাল ছেড়েই দিয়েছিলাম। কাকাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি সেই সময়। ধরেই নিয়েছিলাম, উনি হয় তো আর বেঁচে নেই। কিছুদিন আগে ডোমকলের এক ব্যবসায়ীর মাধ্যমে খবর পেলাম, রাজস্থানে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আশ্রমে কাকা রয়েছেন। সম্প্রতি আমরা সেখান থেকেই কাকাকে নিয়ে এসেছি।’’

 আফজল মেধাবী ছাত্র ছিলেন। দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ার সময় মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। পরিবারের লোকের দাবি, সেই সময় তাঁর চিকিৎসা করানো হয়েছিল। লাভ হয়নি। বছর বারো আগে একবার বাড়ি থেকে কাউকে না বলে চলে গিয়েছিলেন আফজল। মাসতিনেক পর বাড়ি ফেরেন। কিন্তু ২০০৯ সাল নাগাদ সেই যে ঘর ছেড়েছিলেন, তারপর থেকে তাঁর আর খোঁজ মিলছিল না। শেষ পর্যন্ত সকলে হাল ছেড়ে দেন।

ডোমকলের এক ব্যবসায়ী পরিবারের আদি বাড়ি রাজস্থানে। তাঁদের সূত্রেই দিন চারেক আগে আফজলের খোঁজ পাওয়া যায়। তারপর রাজস্থানের জয়পুর থেকে ৬০ কিমি দুরে ওই আশ্রম থেকে তাঁকে আনা হয়েছে। সাদ্দামের দাবি, ‘‘রাজস্থানের ওই আশ্রমে সেবা-যত্নে অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন আফজল।’’ 

যাঁদের মাধ্যমে আফজলের খোঁজ মিলেছে সেই নারায়ণ মাহেশ্বরী বলছেন,  ‘‘আমার এক দাদার কাছে রাজস্থান থেকে একজন ফোনে জানায় তাদের আশ্রয়ে এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি রয়েছেন, যিনি ডোমকলের নাম-ঠিকানা বলছেন। ডোমকলে পরিচিতদের ফোন করে সব জানাই। হোয়াটসঅ্যাপে আফজলের ছবিও পাঠানো হয় আফজলের বাড়ির লোককে। নিশ্চিত হওয়ার পর ওরা জয়পুরে যোগাযোগ করেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন