• নিজস্ব সংবাদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জীবনহানির আশঙ্কা, দাবি বিজেপি নেতার

BJP

Advertisement

খুন হয়ে যেতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন বিজেপির নদিয়া দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলার স্বাস্থ্য সেলের আহ্বায়ক কৃষ্ণ মাহাতো। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ব্যাপারে তিনি কল্যাণীর মহকুমাশাসক উনিশ রিশিন ইসমাইলের কাছে লিখিত অভিযোগও করেছেন। বিষয়টি এর পর জেলা প্রশাসন ও পুলিশেরও উপর মহলে জানাবেন বলেও এ দিন জানান কৃষ্ণ। 

গত কয়েক বছর ধরে তিনি এলাকায় জমি দখল ও মাটি কাটার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। মাঝেরচরে সরকারি ইটভাটার জমি দখল থেকে শুরু করে সেখানে মাটি মাফিয়াদের দাপট—সব কিছু নিয়েই প্রতিবাদ করেছেন। একাধিক বার প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছেন। কল্যাণী ব্লকের গ্রামীণ এলাকাগুলিতেও, বিশেষ করে শিকারপুরে গিয়ে তিনি মাটি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে চাষিদের নিয়ে রুখে দাঁড়ান। এর ফলেই শাসক দলের একাংশের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর বিরোধ বলে অভিযোগ। 

কৃষ্ণ-র দাবি, ‘‘তৃণমূলের একাংশ মাটি কাটার মধ্যে জড়িত। ওদের আয়ের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ানোয় ওরা আমার ক্ষতি করার ফন্দি এঁটেছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’’ 

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

তাঁর আরও বক্তব্য, ‘‘আমি পুরসভায় চুক্তিভিত্তিতে কাজ করি। বহু ক্ষণ বাইরে থাকতে হয়। ফলে যে কোনও সময় আমার উপরে আক্রমণ হতে পারে।’’ তিনি দাবি করেন, মাঝেরচরের বাসিন্দা এক মাটি মাফিয়া তাঁকে খুন করার পরিকল্পনা করছে। সে এক সময় সংশোধনাগারে ছিল। এলাকার পরিচিত দুষ্কৃতী। শাসক দলের স্থানীয় কয়েক জন নেতার সঙ্গে তার ভাল সম্পর্ক। 

শহর তৃণমূলের সভাপতি অরূপ মুখোপাধ্যায় ওরফে টিঙ্কুর নাম উল্লেখ করে কৃষ্ণ দাবি করেন, ‘‘আমার জীবনে কোনও ক্ষতি হলে দায়ী থাকবেন টিঙ্কুও।’’ এ ব্যাপারে টিঙ্কুর বক্তব্য, ‘‘কৃষ্ণকে আমরা নেতার মধ্যেই ধরি না। ওর কেন ক্ষতি করব? ভোটের আগে কৃষ্ণ একেবারে পাগলের মতো কথা বলছে। আমাদের দুষ্কৃতীকে নিয়ে দল করার দরকারও নেই।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন