• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সহপাঠী

rape
প্রতীকী ছবি।

সম্পর্কের কথা অজানা ছিল না  দু’বাড়িতে। তবে কলেজ পড়ুয়া ওই সদ্য তরুণের কাছে বিয়ের প্রস্তাব পাড়তেই ক্রমশ দূরত্ব বাড়াতে থাকে সে। তা নিয়েই দু’জনের পুরনো সম্পর্ক ক্রমশ  ঘোলা হতে থাকে। তার জেরেই ওই তরুণীকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ডোমকলের কলেজ পড়ুয়া ওই ছাত্রী। শুধু সহপাঠী ছাত্রটিই নয়, অভিযোগ দায়ের হয়েছে ছেলেটির এক বন্ধুর বিরুদ্ধেও। পুলিশ মঙ্গলবার রাতে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে। বুধবার তাদের বহরমপুর সিজেএম আদালতে পেশ করলে বিচারক তাদের ১৪ দিনের জেল হাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশের কাছে অভিযোগে মেয়েটি জানায়, সোমবার সন্ধ্যায় তাকে ডোমকল থানার কাছেই জনকল্যাণ মাঠে ডেকে পাঠায় ওই যুবক। তার পর বাবা-মা’র সঙ্গে দেখা করানোর ছলে একটি টোটোয় তুলে  বাড়ির দিকে নিয়ে যেতে থাকে। কিছু দূর নিয়ে যাওয়া পরে একটি জঙ্গল ঘেরা জায়গায় টোটো থামিয়ে তুলে নেয় এক বন্ধুকেও। একটু এগোতেই তারা নেমে পড়ে একটি বাঁশ বাগানের কাছে। তার পর তাকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ওই ছাত্রীর দাবি, ‘‘আমাকে যখন অত্যাচার করা হচ্ছিল সেই সময় চিৎকার করতে থাকি, চিৎকার শুনে আশপাশের বাড়ির লোতজন ছুটে আসে আর তাতেই ওরা পালিয়ে যায়। না হলে আমাকে ওরা গলা টিপে মেরে ফেলত।’’

তবে ওই যুবকের বাবার দাবি, ‘‘সাজানো ঘটনা। বিয়ের জন্য চাপাচাপি করতে শুরু করেছিল মেয়েটির পরিবার। ছেলে এখনই বিয়েতে রাজি ছিল না। সে জন্যই তাকে ফাঁসানো হয়েছে।’’ জেলা পুলিশ সুপার কে শবরী রাজকুমার বলেন, ‘‘অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার হয়েছি। সব দিকই খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন