• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহারাষ্ট্র ফেরত তরুণী আক্রান্ত করোনায়

corona
প্রতীকী ছবি।

ফের করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল শান্তিপুরে। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার হরিপুর পঞ্চায়েতের বাসিন্দা এক তরুণীর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তাঁর স্বামী এবং তাঁর পরিবারের আরও চারজনের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। ইতিমধ্যে তাঁদের কোয়রান্টিন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা আক্রান্ত ওই মহিলা শান্তিপুর থানার হরিপুর পঞ্চায়েতের হেমায়েতপুরের বাসিন্দা। তিনি এবং তাঁর স্বামী শ্রমিকের কাজ করেন মহারাষ্ট্রে। সম্প্রতি অন্য পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে তাঁরা রাজ্যে ফেরেন। গত ১৭ মে তাঁরা ট্রেনে হাওড়ায় আসেন। পরের দিন বাসে তাঁদের নিয়ে আসা হয় জেলায়। নদিয়ায় ঢোকার আগে তাঁদের হরিণঘাটা ব্লকের জাগুলিতে কোয়রান্টিন সেন্টারে রাখা হয়। সেখানে তাঁদের লালারসের নমুনা নেওয়া হয় পরীক্ষার জন্য। ২১ মে তাঁদের শান্তিপুরে আনা হয়। সেখানে তাঁরা হোম কোয়রান্টিনে ছিলেন।

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন দুপুরে তাঁদের রিপোর্ট আসে। সেখানে দেখা যায় বছর একুশের ওই তরুণীর রিপোর্ট পজ়িটিভ। এরপর এ দিনই তাঁকে কল্যাণীর কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাঁর স্বামী এবং পরিবারের চার সদস্যের নমুনা নেওয়া হবে। সোমবার থেকে ওই এলাকায় জ্বরের সমীক্ষার কাজ শুরু করবেন স্বাস্থ্য কর্মীরা। জেলা শাসক বিভু গোয়েল বলেন, ‘‘আজ শান্তিপুরে নতুন করে যে পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া গিয়েছে, সেই গ্রামে কনটেনমেন্ট জ়োন করে যাবতীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’’ এ নিয়ে গত দু’সপ্তাহের মধ্যে শান্তিপুর ব্লকে চারজন করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল। সপ্তাহ দুয়েক আগে বাগআঁচড়া পঞ্চায়েতের বড় কুলিয়া গ্রামে এক ন’মাসের শিশুর আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট আসে। পরে তার মায়েরও রিপোর্ট পজ়িটিভ আসে। দিন কয়েক আগে হরিপুর পঞ্চায়েতেরই বাগদেবীপুর গ্রামে এক মহিলা আক্রান্ত হন। এরপর ফের সেই হরিপুর পঞ্চায়েতেরই হেমায়েতপুরে করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল। প্রথম দু’জন অবশ্য কলকাতার হাসপাতালে যাতায়াত করেছিলেন।

কলকাতার একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিল শিশুটি এবং বাগদেবীপুরের ক্ষেত্রে মহিলা নাতির চিকিৎসার জন্য কলকাতার একটি হাসপাতালে যাতায়াত করেছিলেন। সম্প্রতি শান্তিপুর ব্লকে বেশ কিছু পরিযায়ী শ্রমিক বাড়ি ফিরেছেন। তাঁদের পরীক্ষার পাশাপাশি কোয়রান্টিনে রাখা হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন