প্রেক্ষাগৃহে কাউন্সিলরদের শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানের মাঝে আগুন লাগায় চাঞ্চল্য ছড়াল নবদ্বীপে। বৃহস্পতিবার রবীন্দ্র সং‌স্কৃতি মঞ্চে অনুষ্ঠান চলাকালীন মিটার রুমে আগুন লাগে। ওই ঘটনায় ফিউজবক্স, মিটারবক্স-সহ বিদ্যুৎ সংযোগের গুরুত্বপূর্ণ অংশ পুড়ে গিয়েছে। তবে কেউ হতাহত হননি। দমকল আসার আগেই আগুন নিভিয়ে ফেলা হয়। শর্টসার্কিটের কারণেই আগুন লাগে বলে প্রাথমিক তদন্তের পর দমকলের আধিকারিকেরা জানিয়েছেন।  

বেলা তখন বারোটা। আটশো আসনের হল তখন ভিড়ে ঠাসা। মঞ্চে উপস্থিত বিধায়ক, সাংসদ এবং রাজ্যের মন্ত্রী। এমন সময় হলের সব আলো নিভে যায়। এর আগেও রবীন্দ্র সংস্কৃতি মঞ্চে বিদ্যুৎবিভ্রাট হওয়ায় বিদ্যুৎ ফেরার অপেক্ষায় সকলে ধৈর্য ধরে বসেছিলেন। কিন্তু মিনিট কয়েক পেরিয়ে যাওয়ার পরেও বিদ্যুৎ না আসায় দর্শকদের মধ্যে গুঞ্জন ওঠে। তখনই জানা যায় আগুন লাগার কথা। সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন গেট দিয়ে সকলকে নিরাপদে বাইরে বের করে আনা হয়। অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। অনুষ্ঠানের বাকি অংশ নবদ্বীপ পুরসভার সভাকক্ষে সম্পন্ন করা হয়। নবদ্বীপ দমকল কেন্দ্রের আধিকারিক শক্তিরঞ্জন দে জানিয়েছেন, “ওভারলোডের জন্য শর্ট-সার্কিট হয়েই অডিটোরিয়ামের মিটাররুমে আগুন ধরেছিল।”

এ দিন পুরপ্রধান, উপ-পুরপ্রধান-সহ ২৪ জন কাউন্সিলর শপথ নেন। পুরপ্রধান হিসেব পুনরায় শপথ নেন বিমানকৃষ্ণ সাহা। উপ-পুরপ্রধানের দায়িত্বে নতুন এ বার মুখ শচীন্দ্র বসাক। নবদ্বীপ পুরসভায় তৃণমূল জমানার প্রথম কয়েক মাস বাদে টানা উপ-পুরপ্রধান পদে থাকা তুষার ভট্টাচার্যকে এ বার উপ-পুরপ্রধানের পদ থেকে সরিয়ে পুর-পরিষদ সদস্য করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, গত পুরবোর্ডে শচীন্দ্রবাবু ছিলেন পুর-পরিষদ সদস্য। যদিও উপ-পুরপ্রধান নিয়ে গত কয়েক দিন ধরে কানাঘুষো অনেক কথাই ভেসে বেড়াচ্ছিল শহরে। এমনও শোনা যাচ্ছিল এ বার মহিলা উপ-পুরপ্রধান পেতে পারে নবদ্বীপ। সব জল্পনায় জল ঢেলে শচীন্দ্রবাবু উপ-পুরপ্রধান হওয়ায় অনেকেই বিস্মিত।