• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উৎপলের বিরুদ্ধে খুনের ধারা চার্জশিটে

Utpal Behra
উৎপল বেহরা। —ফাইল চিত্র

জিয়াগঞ্জে শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি পাল ও তাঁদের ছয় বছরের ছেলে অঙ্গন পালকে খুনের ঘটনায় চার্জ গঠন হল। মূল অভিযুক্ত উৎপল বেহরার বিরুদ্ধে ৩০২ খুন ও ২০১ প্রমাণ লোপাট, এই দু’টি ধারায় চার্জশিট জমা করে পুলিশ। 

উৎপলকে এ দিন দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালতের বিচারক সৌম্যজিৎ মুখোপাধ্যায়ের এজলাসে হাজির করানো হয়। বিচারক এজলাসে উৎপলকে দাঁড় করিয়ে সম্পূর্ণ ঘটনার কথা জানিয়ে জানতে চান, সে ওই ঘটনায় দোষী কি না। উৎপল তখন দাবি করে, বন্ধুপ্রকাশ ও তাঁর পরিবারের খুনের ঘটনায় সে নির্দোষ। 

গত ৮ অক্টোবর বিজয়া দশমীর দিন জিয়াগঞ্জের লেবুবাগানে নিজের বাড়িতেই কুপিয়ে খুন করা হয় ওই তিন জনকে। ওই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সাগরদিঘির সাহাপুরের বাসিন্দা উৎপলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি চার্জ গঠন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সরকারি পক্ষের নিযুক্ত ব্যাঙ্কশাল কোর্টের আইনজীবী নবকুমার ঘোষ না আসায় ওই দিন চার্জগঠন হয়নি। যদিও এ দিনও নবকুমার অনুপস্থিত ছিলেন। তার অনুমতিতে বৃহস্পতিবার মামলা লড়েন সরকার পক্ষের আইনজীবী প্রিয়নাথ রায়। 

এ দিন তিনি বলেন, ‘‘উভয় পক্ষকে জানিয়ে আদালত ৩০২ ও ২০১ ধারায় আজ চার্জ গঠন করল। মে মাসের ১১, ১২ ও ১৩ তারিখ থেকে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হবে বলে আদালত জানিয়েছে। তত দিন উৎপল জেল হেফাজতেই থাকবে।’’ এ দিন উৎপলের আইনজীবী কৌশিক দে বলেন, ‘‘আজ ঘটনার চার্জ গঠন হল। আজ বিচারক উৎপলকে জানতে চেয়েছিলেন, সে দোষী কি না। উৎপল জানিয়েছে সে এই ঘটনায় দোষী নয়, সে সম্পূর্ণ নির্দোষ। বাকিটা সাক্ষ্য গ্রহণে প্রমাণিত হবে।’’ 

এই মামলা নিয়ে এলাকায় কৌতূহল রয়েছে। অনেকেই এ দিন আদালতেও এসেছিলেন। মামলা চলার সময়ও ভিড় হবে বলে মনে 

করা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন