• বিদ্যুৎ মৈত্র
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাজ্যস্তরে বৈঠকের পরেও অধরা কমিিটর নাম ঘোষণা

TMC,Committee
প্রতীকী ছবি
মুর্শিদাবাদ জেলার জেলা, ব্লক ও টাউন কমিটিতে কারা ক্ষমতায় আসছেন, কারা থাকছেন, তা নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্তের কথা জানেন না জেলার সাধারণ তৃণমূল কর্মীরা। জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান সুব্রত সাহা এবং দুই কো-অর্ডিনেটর অরিত মজুমদার এবং সৌমিক হোসেন এখনও কলকাতায়। রাজ্য নেতৃত্বের সাংগঠনিক বৈঠকের অনেক আগে থেকেই কলকাতায় আছেন সৌমিক হোসেন। অরিত ও সৌমিকের দাবি, পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসা সংক্রান্ত কাজেই তাঁরা কলকাতায় রয়েছেন। কিন্তু তৃণমূলেরই একটি অংশ জানাচ্ছেন, যে নেতারা কলকাতায় রয়েছেন, তাঁরা নিয়মিত রাজ্ স্তরের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জেলার কমিটিগুলোতে কে কে থাকবেন, তা নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন। তবে সেই আলোচনার পরেও জেলার কমিটিগুলোর নেতৃত্ব নিয়ে এখনও কলকাতা থেকে কোনও সিদ্ধান্ত আসেনি।
 
জেলা তৃণমূলের একটি সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রী উত্তরবঙ্গ সফর সেরে এলেই ঘোষণা হতে পারে বহু প্রতীক্ষিত মুর্শিদাবাদ জেলা কমিটি। ইতিমধ্যে সোমবার সকালে জেলায় ফিরেছেন জেলা সভাপতি আবু তাহের। 
 
এদিকে তৃণমূলের নয়া জেলা কমিটি গঠনের দিকে তাকিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিও।  তৃণমূলের কমিটি তৃণমূলের আভ্যন্তরীণ বিষয় বলে মন্তব্য করলেও, তা নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি জেলা কংগ্রেস কিংবা বিজেপি নেতারা। 
 
কংগ্রেসের মুখপাত্র জয়ন্ত দাস বলেন, “আসলে নেতারা প্রত্যেকেই ভাবছেন কাকে দায়িত্ব দিলে সেই নেতার ফায়দা বেশি তাই নিয়েই হিসেব নিকেশ চলছে বলে দল গঠন করতে দেরি হচ্ছে। তবে তৃণমূল দলের নিয়মনীতি সম্পর্কে কোন সুস্থ মানুষের যত কম কথা বলা যায় ততই ভাল। এদের সবটাই ওপেন সিক্রেট।” 
 
বিজেপির সভাপতি গৌরীশঙ্কর ঘোষ বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেসের সাংগঠনিক ভিত্তি নেই। ওরা কখনও সিপিএম কখনও কংগ্রেসের জনপ্রতিনিধিদের কিনে নিয়ে জেলার সমস্ত পঞ্চায়েত পুরসভা দখল করেছে। তাই এক দিকে সংগঠন চালানোর মতো লোকের অভাব রয়েছে।’’ গৌরীশঙ্কর বলেন, ‘‘আবার এও শুনেছি তৃণমূলে কোনও পদ পেতে গেলে টাকা দিয়ে নিতে হয়। তাই ভোটের আগে যে বেশি দর দেবে সে পদ পাবে। তাই দরকষাকষি চলছে। দেরিও হচ্ছে।” 
 
জেলা কমিটি গঠন নিয়ে দেরি হওয়ার কারণে আবু তাহের খান বলেন, “প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের নিজস্ব চিন্তাভাবনা আছে। সেই মত কমিটিও গঠন হয়। আবার সব দলেই ভাল খারাপ সদস্য আছে। সেক্ষেত্রে বাছাই করতে গেলে স্ক্যানিং করতে হয়। সেই কাজটাই চলছে। সময়ও লাগছে সেই কারণেই। এক আধ সপ্তাহের মধ্যেই দল ঘোষণা হয়ে যাবে। ওদের চিন্তার কোনও কারণ নেই।”    

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন