• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অশালীন  আচরণ, ধৃত শিক্ষক

Molestation
প্রতীকী ছবি

প্রাইভেট টিউশন নিতে আসা এক ছাত্রীর সঙ্গে অশালীন আচরণ ও ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল সংস্কৃত শিক্ষককে। স্নেহাশিস রায় নামে ওই শিক্ষক নবদ্বীপে কোচিং সেন্টার চালানোর পাশাপাশি কৃষ্ণনগর দ্বিজেন্দ্রলাল রায় কলেজে অতিথি শিক্ষক হিসাবে কাজ করছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালেই সমাজমাধ্যমে এই নিয়ে সরব হয়েছিলেন নবদ্বীপ কলেজের সংস্কৃত অনার্সের দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া ওই ছাত্রী। বিকেলে তাঁর মা নবদ্বীপ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ছাত্রীটির অভিযোগ, গত দু’বছর ধরে তাঁর সঙ্গে অনভিপ্রেত আচরণ করে আসছিলেন ওই শিক্ষক। তাঁর মোবাইলে অশালীন মেসেজ এবং কুপ্রস্তাব পাঠাতেন। কিছু ঘটনার উল্লেখ করে এবং মেসেজের স্ক্রিনশট দিয়ে এ দিন সকালে তিনি ফেসবুকে একটি দীর্ঘ পোস্ট করেন। এর পরেই হইচই শুরু হয়ে যায় শহর জুড়ে। ওই শিক্ষকের আরও কিছু প্রাক্তন ছাত্রী একই রকম অভিজ্ঞতার অভিযোগ তোলেন পোস্টের নীচে কমেন্টে। 

 

নবদ্বীপ ওলাদেবীতলা বাসিন্দা ওই শিক্ষক বুড়োশিবতলা রোডে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে ‘নবদ্বীপ বৈদিক সংস্কৃত শিক্ষাঙ্গনম্’ নামে কোচিং সেন্টার খুলে গত কয়েক বছর যাবৎ পড়াচ্ছিলেন স্নেহাশিস। ছাত্রীর মায়ের অভিযোগ, গত নভেম্বরে এক দিন বাকি ছাত্রছাত্রীদের ছুটি হয়ে গেলেও  মেয়ের সঙ্গে পড়াশুনা বিষয়ে কথা আছে বলে তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন স্নেহাশিস। মেয়েটি কোনও রকমে বেরিয়ে এলেও তিনি হুমকি দেন, কাউকে জানালে চরম ক্ষতি হবে। সেই ভয়েই তাঁরা কাউকে কিছু জানাননি। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন