শুক্রবার গভীর রাতে ডাউন উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেস থেকে পাঁচ বালককে উদ্ধার করল রেল পুলিশ। মালদহ টাউন স্টেশনে ওই ট্রেন থেকে রেলওয়ে চাইল্ডলাইনের সহযোগিতায় রেল পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। যদিও এই ঘটনায় কোনও পাচারকারী অথবা দালাল চক্রকে ধরা সম্ভব হয়নি। রাতেই ওই পাঁচ বালককে মালদহ জেলা চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির (সিডব্লিউসি) হাতে তুলে দেওয়া হয়।

শনিবার এ নিয়ে জেলা সিডব্লিউসি’র চেয়ারপার্সন চৈতালি ঘোষ সরকার বলেন, ‘‘শুক্রবার মাঝরাতে নিউ কোচবিহার থেকে কলকাতামুখী উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেসের অসংরক্ষিত কামরা থেকে পাঁচ নাবালককে নিয়ে কলকাতায় যাওয়া হচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে রেলওয়ে চাইল্ডলাইনের সহযোগিতা নিয়ে রেল পুলিশের কর্মীরা অভিযান চালান ওই ট্রেনে। এবং অসংরক্ষিত কামরা থেকে ওই পাঁচ নাবালককে উদ্ধার করে তারা।’’ সিডব্লিউসি’র মালদহ শাখা সূত্রে জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ওই নাবালকদের বাড়ি উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের বটতলি এলাকায়।  তাদের বয়স ১১ থেকে ১২ বছর। সম্ভবত, আলুয়াবাড়ি স্টেশন থেকে ওই নাবালকেরা ট্রেনে ওঠে। প্রাথমিক ভাবে তারা জানতে পেরেছে, কোনও একটি দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে ওই নাবালকদের কলকাতার একটি কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু এই বয়সী ছেলেদের দিয়ে কোনও কাজ করানো আইনত অপরাধ। রেল পুলিশ জানিয়েছে, তারাও এই ঘটনায় পৃথক তদন্ত করে দেখবে।

মালদহ জেলা চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটি সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ওই নাবালকদের জেলার সিডব্লিউসি’র হাতে  তুলে দেওয়া হয়েছে। তারা ওই নাবালকদের তাদের পরিবারের হাতে তুলে দেবে। মালদহ সিডব্লিউসি’র চেয়ারপার্সন বলেন, ‘‘ওই ছেলেদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলা হবে। যাতে এইসব ছেলেদের এই বয়সে কোনও কাজে না পাঠিয়ে লেখাপড়া শেখানো যায়। শিক্ষাক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের বিষয়েও বোঝানো হবে অভিভাবকদের। পাশাপাশি, ওই শিশুদের নজরে রাখা হবে যেন, ফের তাদের কাজের জন্য কোথাও পাঠানো না হয়।’’