শিবচতুর্দশীর রাত জাগার পরবে সশব্দে গান বাজবে না, বক্সের আওয়াজে মাটি কাঁপবে না, তা কি হয়! উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য উচ্চস্বরে বক্স বাজানোয় প্রশাসনিক নিষেধোজ্ঞা রয়েছে। তাকে উপেক্ষা করেই সোমবার সকাল থেকে জোরাল শব্দে বক্স, মাইকের দাপট শুরু। দুপুর গড়াতেই তার অত্যাচারও বেড়েছে।

সকাল থেকে বালুরঘাট শহরের কল্যাণীঘাট কলোনি থেকে একে গোপালন কলোণি, খিদিরপুর এলাকায় বড় বক্স বাজতে থাকে। আত্রেয়ী কলোনির শিবমন্দিরে আবার চোঙ বাজানো হয়। মুখ্যমন্ত্রীর ডিজে বক্স নিষেধের নির্দেশ পালনে পুলিশের তরফে এ দিন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি বলে অভিযোগ। পুজো উদ্যোক্তাদের অবশ্য দাবি, তাঁরা ডিজে বক্স বাজাননি। ছোট সাউন্ডবক্সে গান বাজাচ্ছেন।

অন্য দিকে এ দিন সকাল থেকে সন্ধে পর্যন্ত কয়েক হাজার পুণ্যার্থী ইটাহারের চূড়ামণ এলাকার মহানন্দা নদীতে স্নান করতে যান। তাঁদের মধ্যে অনেকেই বিভিন্ন গাড়িতে ডিজেবক্স ও মাইক চাপিয়ে উচ্চশব্দে বাজিয়ে শোভাযাত্রা করে শিবমন্দিরে পুজো দেন। পুজোর পরে ফের ডিজেবক্স ও মাইক বাজিয়ে বাড়ি ফেরেন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত রায়গঞ্জের কসবামোড়, কলেজপাড়া, সুদর্শনপুর, কর্ণজোড়া, বোগ্রাম, দেবীনগর, অশোকপল্লি, মোহনবাটী, তুলসীপাড়া, কাঞ্চনপল্লি, সুভাষগঞ্জের শিবমন্দির ও মণ্ডপের সামনে সকাল থেকেই জোরাল শব্দে মাইক বেজেছে। ইটাহার সদর-সহ কালিয়াগঞ্জ ও হেমতাবাদের জাতীয়, রাজ্য ও গ্রামীণ সড়কের ধার সহ বিভিন্ন পাড়ায় দুপুরের পর থেকে রাত পর্যন্ত একাধিক শিবমন্দির ও অস্থায়ী শিবপুজোর মণ্ডপের সামনে সাউন্ডবক্স বাজানো হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। ইটাহারের বানবোল হাইস্কুলের সহকারী প্রধানশিক্ষক চন্দ্রনারায়ণ সাহার বক্তব্য, পরীক্ষা চলাকালীন পড়ুয়াদের স্বার্থে সাউন্ডবক্স, ডিজেবক্স ও মাইক না বাজানোই কাম্য। শিবরাত্রি উপলক্ষে এ দিন বিভিন্ন এলাকায় সে সব বেজেছে। পুলিশের উচিত ছিল সেগুলি বন্ধ করা বা শব্দ কমিয়ে দেওয়া।’’

উত্তর দিনাজপুরের পুলিশ সুপার সুমিত কুমারের অবশ্য দাবি, মাইক ও ডিজেবক্স বাজানোর অভিযোগ জমা পড়েনি। কিছু এলাকায় মাইক ও সাউন্ডবক্স বাজানো হচ্ছিল। পুলিশের অনুরোধে তাঁরা সেগুলি বন্ধ করে দেন।

বালুরঘাটের বুড়াকালী শিবের মন্দিরে জল ঢালতে দলে দলে কিশোর তরুণী ও মহিলা ভক্তদের ভিড় সামলাতে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তার পরেও শহরতলি, কলোনি থেকে গ্রামের শিবমন্দিরের পুজোয় রাতজাগা সঙ্গীতপ্রেমী ভক্তদের বক্স-বাজানোর আয়োজনে কোনও খামতি দেখা যায়নি বলে অভিযোগ। ডিএসপি (সদর) ধীমান মিত্রের বক্তব্য, ‘‘অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়। সাউন্ডবক্সও জোরে বাজানো হলে বন্ধ করে দেওয়া হয়।’’

আজ, মঙ্গলবার উচ্চমাধ্যমিকের অঙ্ক, সাইকোলজি, অ্যানথ্রোপলজি, অ্যাগ্রোনমি ও ইতিহাস পরীক্ষার সূচি নির্ধারিত রয়েছে। রায়গঞ্জ পুরসভার তৃণমূলের পুরপ্রধান সন্দীপ বিশ্বাসের দাবি, পরীক্ষার্থীদের যাতে সমস্যা না হয়, তার জন্য এ দিন তিনি পুজো উদ্যোক্তাদের অনুরোধ করে মাইকের শব্দ কমিয়েছেন।