যাত্রীর দু’লক্ষ টাকা ফেরত দিয়ে সততার এক নজির গড়লেন ইংরেজবাজার থানার রায়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা পেশায় অটো চালক অরবিন্দ রায়। মালদহ আদালত চত্বরের ঘটনা। অরবিন্দবাবুর এই কীর্তি দেখে খুশি আদালত চত্বরে উপস্থিত সকলেই।

ইংরেজবাজার থানার কোতোয়ালি পঞ্চায়েতের রায়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা অরবিন্দবাবু চার বছর ধরে অটো চালাচ্ছেন। আগে তিনি ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতেন। রোজকার মতো এ দিনও তিনি সকাল দশটা নাগাদ অটো নিয়ে বেরোন।

কোতোয়ালিতে এলাকায় তাঁর অটোতে মেয়ে মুসলেমা খাতুনকে নিয়ে ওঠেন বুধিয়ার বাসিন্দা মফিজউদ্দিন শেখ। মফিজউদ্দিন পেশায় জমি ব্যবসায়ী। এ দিন জমি রেজিস্ট্রি করার জন্য মালদহে আদালতে আসছিলেন তিনি। আদালত চত্বরে অটো থেকে মেয়েকে নিয়ে নেমে পড়েন তিনি। ভাড়া নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে অটো নিয়ে বেরিয়ে যান অরবিন্দবাবু। শহরের রথবাড়ি স্ট্যান্ডে গিয়ে তিনি দেখতে পান গাড়ির পেছনের সিটে একটি কালো রঙের ব্যাগ পড়ে রয়েছে। ব্যাগটি খুলে দেখতেই দেখেন প্রচুর টাকা রয়েছে। টাকা দেখে আর দেরি করেননি তিনি। সোজা চলে যান আদালত চত্বরে। তত ক্ষণে সেই টাকা হারিয়েছে বলে হন্যে হয়ে আদালত চত্বর খুঁজে ফিরছিলেন মফিজউদ্দিন ও তাঁর মেয়ে। আদালতে এসে টাকার ব্যাগটি তাঁদের ফেরত দেন অরবিন্দবাবু। হারানো সম্পত্তি ফিরে পেয়ে তখন দারুণ খুশি মফিজউদ্দিনরাও।