• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নেতাদের মেয়ে না স্ত্রী, জল্পনা দলেই

TMC

সভাধিপতির আসন এ বছর মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত। হেভিয়েটদের মেয়ে, না স্ত্রী—কে বসবেন উত্তর দিনাজপুরের জেলা পরিষদের সভাধিপতির আসনে, তৃণমূলের জয়ের পরেই তাই নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। এর মধ্যে দলের একাংশের দাবি তৃণমূলের জেলা সভাপতি অমল আচার্যর মেয়ে পূজার দিকে। পূজা ২০১৩ সালে ইটাহার ব্লকের পতিরাজপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে প্রধান হয়েছিলেন। বছর দেড়েক পরে প্রাথমিক স্কুল শিক্ষিকার চাকরি পাওয়ায় প্রধানের পদ ছেড়ে দেন। তিনি ছাড়াও ওই তালিকায় রয়েছেন অন্তত আরও ৪ জন।

২০১৩ সালে বামেরা জেলা পরিষদে বোর্ড গঠন করলেও পরে অধিকাংশ সদস্য তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় বোর্ড দখল করে তৃণমূল। দলের একাংশের যুক্তি, দু’বারই সভাধিপতি হয়েছেন ইসলামপুর মহকুমা থেকেই। তাতে দলের একাংশের মধ্যে দাবি উঠেছে, এ বারে রায়গঞ্জ মহকুমা থেকে কাউকে সভাধিপতি করা হোক। সে ক্ষেত্রে পূজাই পছন্দ দলের কর্মীদের। দলের জেলা সভাপতি মেয়ের বাবা অবশ্য বলেন, ‘‘সম্ভাব্যদের নামের তালিকা জেলার পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারীর কাছে জানানো হবে। দলনেত্রী যা সিদ্ধান্ত নেবেন সেটাই চূড়ান্ত।’’

পূজা ছাড়া ওই তালিকায় আছেন হেমতাবাদ ব্লক তৃণমূলের সভাপতি প্রফুল্ল বর্মনের স্ত্রী কবিতা। তিনি হেমতাবাদের ১৭ নম্বর আসন থেকে জিতেছেন। হেমতাবাদের ১৬ নম্বর আসনে এ বারে জিতেছেন যুব তৃণমূলের সভাপতি গৌতম পালের স্ত্রী পম্পা। সভাধিপতির পদে দলের একাংশ তাঁকেও চাইছেন। গৌতম-পম্পা বলেন, ‘‘রাজ্য নেতৃত্ব যা সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই হবে।’’ প্রফুল্ল দলে অমলের ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত। তাঁর কথায়, ‘‘ভোটাররা এলাকার জনপ্রতিনিধিদের ভাল পদে দেখতে চানন। বাকিটা দলের উপরে।’’

করণদিঘির ১৫ নম্বর আসনে এলাকার বিধায়ক মনোদেব সিংহের স্ত্রী বিপাশা জিতেছেন। সভাধিপতি পদে তাঁর নাম নিয়েও জল্পনা চলছে দলে। তবে তিনি এখন কিছু বলতে চাননি। চোপড়ার বিধায়ক হামিদুর রহমানের মেয়ে আর্জুনা বেগম (লাভলি) ৩ নম্বর আসন থেকে জিতেছেন। সভাধিপতির পদে অন্যতম দাবিদার তিনিও। আর্জুনাও বিষয়টি দলের উপরেই ছেড়েছেন। এর আগে তৃণমূল বোর্ড দখলের সময় জেলা পরিষদের সদস্য ছিলেন জাভেদ আখতার। তাঁর স্ত্রী ফারহাত বানুও এ বার ইসলামপুর ব্লকের ৬ নম্বর আসন থেকে জিতে দাবিদারের তালিকায়। দলের প্রবীণ নেতা জাভেদ বলেন, ‘‘পদের প্রত্যাশা তো রয়েইছে। দলের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছি।’’

আবার গোয়ালপোখর-২ ব্লকে চাকুলিয়ার ১২ নম্বর আসনে জিতেছেন নিখাত পারভিন। তাঁর স্বামী জাহিদ আলম আরজু গোয়ালপোখরের বিধায়ক তথা প্রতিমন্ত্রী গোলাম রব্বানির অন্যতম ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। জাহিদাও জানান, দল যা ঠিক করবে সেটাই চূড়ান্ত।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন