সোমবার দিল্লিতে বিজেপিতে যোগদানের সময়ে তাঁকে কি কিছুটা উদ্বিগ্ন লাগছিল? অনুষ্ঠানটি টিভিতে দেখে এই প্রশ্ন বিপ্লব মিত্রের অনেক সমর্থকেরই। একই সঙ্গে তাঁরা তুলছেন আর একটি প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন, বিজেপিতে কী পদ দেওয়া হচ্ছে বিপ্লবকে? জেলা বিজেপি নেতৃত্ব অবশ্য এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চায়নি। বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার বলেন, ‘‘কাকে কি পদ দেওয়া হবে, সেটা ঠিক করেন রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এটা আমার এক্তিয়ারের বাইরে। উনি আমাদের দলে এসেছেন, তাঁকে নিশ্চয়ই যোগ্য সম্মান দেবেন নেতৃত্ব।’’ 

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের দশ জন সদস্যকে নিয়ে সোমবার বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের দুই দশকের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র। জেলায় দীর্ঘদিন রাজনীতি করার সুবাদে জেলার তৃণমূল সংগঠনকে হাতের তালুর মতো চেনেন তিনি। কার্যত তাঁর হাত ধরেই রাজনীতিতে পা রেখে এখন জেলার বিভিন্ন পদে রয়েছেন একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নেতা। কাজেই বিপ্লবকে দলে এনে তাঁকে দিয়েই জেলার তৃণমূলকে ভাঙাতে চাইবে বিজেপি, আলোচনা চলছে গেরুয়া শিবিরেই। 

সূত্রের খবর, এ জন্যই বিপ্লবকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়া হতে পারে। তাঁকে উত্তরবঙ্গে বিজেপির অন্যতম পর্যবেক্ষকও করা হতে পারে। ওই সূত্রের দাবি, উত্তরবঙ্গের পর্যবেক্ষক করা হলে বিপ্লবের সাংগঠনিক ক্ষমতাকে পুরোপুরি কাজে লাগানো যাবে বলে মনে করছে গেরুয়া শিবির। তৃণমূলের জন্মলগ্ন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দল করার সুবাদে এই জেলার পাশাপাশি উত্তর দিনাজপুর জেলার অনেক নেতানেত্রীর সঙ্গেও বিপ্লবের সুসম্পর্ক রয়েছে। তাঁর সেই পরিচিতিও কাজে লাগানো হতে পারে। 

বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বিপ্লবের উপরে হামলার আশঙ্কাও করছেন। তাই তাঁকে ওয়াই স্তরের নিরাপত্তা দেওয়া হতে পারে বলেও একটি সূত্রের দাবি। বিপ্লব অনুগামীদেরও মতে, এর আগে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে গিয়ে অনেকেই ওয়াই ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পেয়েছেন। তা হলে বিপ্লবই বা পাবেন না কেন? বিশেষ করে যেখানে জেলায় তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে। সম্প্রতি বিপ্লবের শহর গঙ্গারামপুরেও পুলিশের সঙ্গে বিজেপি সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে। দিল্লি থেকে বিপ্লব বলেন, ‘‘আমাকে উত্তরবঙ্গের আটটি জেলার দায়িত্ব দেওয়া হবে বলে শুনেছি। পাশাপাশি, বিশেষ স্তরের নিরাপত্তাও দেওয়া হতে পারে বলে আমায় জানানো হয়েছে। আমি এ সব কিছুই চাইনি। উত্তরবঙ্গে তৃণমূল থেকে লোকজন অচিরেই অনেকেই আমাদের সঙ্গে আসবেন।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।