বাবা করণদিঘির বাস স্ট্যান্ডে একটি ছোট গুমটি নিয়ে সাইকেল মিস্ত্রির কাজ করেন। মা গৃহবধূ। বাড়িতে টিনের ছাউনি। অভাবের সংসারের সেই মেয়েই পাড়ি দিতে চলেছেন ধনবাদ আইআইটিতে। পেট্রোলিয়াম নিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে চলেছেন তনুশ্রী সিংহ।

করণদিঘি বাস স্ট্যান্ড থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে বিন্দ্যাবাড়ি গ্রামে বাড়ি তনুশ্রীর। বাড়িতে বাবা মা ও ছোট ভাই আছে। বাবা শ্যামল সিংহ করণদিঘি বাস স্ট্যান্ড সাইকেল সারাই করেন। তনুশ্রী পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত করণদিঘি  হাইস্কুলে পড়েছেন। বাড়িতে অভাব থাকায় তনুশ্রীকে ডালখোলা জহর নবোদয় বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি করানো হয়। মাধ্যমিক পাশ করার পরে ডালখোলা থেকে তনুশ্রীকে উচ্চ মাধ্যমিকে নবোদয় বিদ্যালয়ের হায়দ্রাবাদ পাঠানো হয়। তনুশ্রীর মেধা দেখে নবোদয় বিদ্যালয়ের তরফে পৃথক কোচিংয়েরও ব্যবস্থা করা হয়। তাতেই এই সাফল্য, জানালেন তনুশ্রী।

তনুশ্রীর ফলের খবরে এলাকার মানুষ খুশি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তিনি করণদিঘি ব্লকের নাম উজ্জ্বল করেছেন। তনুশ্রীর পরিবারের লোকের দাবি, করণদিঘি ব্লক থেকে এই প্রথম কোনও মেয়ে আইআইটিতে পড়তে যাচ্ছেন। তনুশ্রীর মা শেফালি বলেন, ‘‘মেয়ের সাফল্যে আমরা খুশি। আমার কাছে এখনও স্বপ্ন মনে হচ্ছে। খুব ভাল লাগছে।’’