• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তাড়ানো হবে, হুমকি দিলীপের

Dilip Ghosh threats Muslim immigrants will be  kicked away
দিলীপ ঘোষ। ফাইল চিত্র

Advertisement

প্রয়োজনে ভোটার কার্ড বাতিল করে অনুপ্রবেশকারী মুসলিমদের দেশ থেকে তাড়ানো হবে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার তুফানগঞ্জের দোল মেলার মাঠের সভায় এ-কথা বললেন দলের রাজ্য সভাপতি। 

তুফানগঞ্জে এ দিন ‘অভিনন্দন যাত্রা’য় অংশ নেন দিলীপ। তার পরেই সভায় তিনি বলেন, “বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারী মুসলমানদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে। যদি তাঁরা এই রাজ্যের ভোটার হয়ে থাকেন, তাহলে সেই ভোটার কার্ড বাতিল করে তাঁদের তাড়ানো হবে।” এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। তাঁর দাবি, পশ্চিমবঙ্গে এক কোটি অনুপ্রবেশকারী রয়েছে। যার মধ্যে ৬০ লক্ষ অনুপ্রবেশকারী তৃণমূলকে গত লোকসভায় ভোট দিয়েছেন। তারই রেশ ধরে এ দিনই কোচবিহারের পঞ্চানন হলের সংবর্ধনা সভায় দিলীপ বলেন, “গত লোকসভায় তৃণমূল আমাদের থেকে ১৭ লক্ষ ভোট বেশি পেয়েছে। তাদের প্রাপ্ত ভোট থেকে রোহিঙ্গা ও অনুপ্রবেশকারীদের ভোট কেটে দিলে আর কিছু থাকবে না।”

কোচবিহার বাংলাদেশ লাগোয়া জেলা। এই জেলারই তুফানগঞ্জ মহকুমা অসম লাগোয়া। এমন একটি জায়গায় দাঁড়িয়ে দিলীপের এমন বক্তব্যে স্বাভাবিক ভাবেই আলোড়ন পড়েছে। দলীয় সূত্রেই জানা গিয়েছে, এ দিন ‘অভিনন্দন যাত্রা’য় ভাল ভিড় হয়। যা দেখে শুরুতেই উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েন দিলীপ। তিনি সভামঞ্চ থেকেই তৃণমূলের কোচবিহার জেলার প্রাক্তন সভাপতি তথা উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকেও কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, “আশা করেছিলাম রবিবাবু অভিনন্দন যাত্রা দেখবেন। পরে শুনলাম তিনি অসুস্থ। যাই হোক, আবার তুফানগঞ্জে মিছিল হবে। আশা করি, সেই মিছিলে পুষ্পবৃষ্টি হবে।” কোচবিহারের সংবর্ধনা সভাতেও তিনি তৃণমূলকে আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, “লোকসভা ভোটের পরে তৃণমূল কোমায় চলে গিয়েছে। পুলিশকে ধরে আবার কিছুটা ওঠার চেষ্টা করছে।” কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, “আপনারা লড়াই করতে থাকুন। বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।”

সংবর্ধনা সভায় তাঁর ভাষা নিয়ে ওঠা বিতর্কেরও জবাব দেন দিলীপ। তাঁর দাবি, চারদিকে বিজেপির কর্মীদের খুন করা হচ্ছে। ১০০ জনের কাছাকাছি সেই সংখ্যাটা পৌঁছে গিয়েছে। যা দেখে তাঁর মন ভারাক্রান্ত হয়ে পড়ে। তিনি বলেন, “ভাষা নিয়ে চারদিকে নানা কথা হচ্ছে। সন্তান-হারানো মায়ের মুখ, স্বামী-হারানো স্ত্রীর মুখ দেখে কারও মুখে ভাল ভাষা বের হয় না।” তৃণমূল অবশ্য দিলীপের কথায় গুরুত্ব দিতে নারাজ। তৃণমূলের দাবি, তুফানগঞ্জে অসম থেকে লোক নিয়ে মিছিল করেছে বিজেপি। উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ বলেন, “ভাড়াটে লোক এনে মিছিল করেছে বিজেপি। তা সবাই জানে। আর দিলীপবাবুর ভাষার জবাব মানুষ ভোটেই দেবে।”

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন