আগুনে পুড়ে গেল প্রায় তিন হাজার চা গাছ। জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের রায়পুর চা বাগানের মঙ্গলবারের ঘটনা।

এ দিন দুপুরে হঠাৎ করেই বাগানের ৪৯ নম্বর সেকশনে আগুন দেখতে পান শ্রমিকদের একাংশ। তাঁরা জানাচ্ছেন, এমনিতে শুকনো আবহাওয়া রয়েছে তার উপর তিস্তা নদী থেকে আসা হাওয়ায় মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। তা দেখেই তড়িঘড়ি আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগান তাঁরা। তবুও ছড়িয়ে পড়ে আগুন। দেখতে দেখতে প্রায় চার বিঘা জমিতে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। শেষে খবর দেওয়া হয় দমকলকে। খবর পেয়ে দু’টি ইঞ্জিন পৌঁছয় ঘটনাস্থলে। বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে দমকল। 

বেশ কয়েকমাস আগে বাগান ছেড়ে চলে গিয়েছে মালিকপক্ষ। তারপর থেকে শ্রমিকেরা সমবায় করে রুগ্ন বাগানটি থেকে চা পাতা তুলে চালিয়ে যাচ্ছিলেন। এ দিন আগুন লাগায় মাথায় হাত পড়েছে শ্রমিকদের।

স্থানীয় শ্রমিক মুন্ডা ওরাওঁ বলেন, ‘‘আগুন লেগেছে বাগানে, এই খবর পেয়েই চলে এসেছি। অনেক চা গাছ পুড়ে গেছে। খুব ক্ষতি হয়ে গেল।’’ 

বাসিন্দারা জানান, ওই এলাকায়  আশেপাশে জলের উৎস নেই। গাছের ডাল কেটে তাঁরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও হাওয়া থাকায় আগুন বেড়ে গিয়েছে।  

পাতকাটা গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান তথা বাগানের শ্রমিক প্রধান হেমব্রম বলেন, ‘‘প্রায় তিন হাজার চা গাছ পুড়ে গিয়েছে। কী ভাবে আগুন লেগেছে এখনও জানা যায়নি।’’

দমকলের এক আধিকারিক জানান, এখন আগুন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি জানান, এই আবহাওয়ায় শুকনো পাতায় আগুন লেগে যায়। এ দিন রায়পুর চা বাগানে কী ভাবে আগুন লাগল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেনে দমকল আধিকারিকরা।