• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু বালিকার, বিক্ষোভ

Chandana
চন্দনা বর্মণ

ফুল পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক বালিকার। দশমীর সকালে জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের বাগজান গ্রামের ঘটনা। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, বেআইনি ভাবে স্থানীয় এক পঞ্চায়েত সদস্য তাঁর পোলট্রি ফার্মটি বৈদ্যুতিক তারের বেড়া দিয়ে ঘিরে রেখেছেন। ওই তারে হাত লেগেই বালিকাটি মারা যায়। 

পুলিশ জানায়, এলাকার বাসিন্দা পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী চন্দনা বর্মণ (১০) ও তার সঙ্গী রিয়া রায় এ দিন সকালে পঞ্চায়েত সদস্য অসিত রায়ের বাড়ি লাগোয়া গাছ থেকে ফুল পাড়তে গিয়েছিল। পাশেই অসিত ও তাঁর প্রতিবেশী তাপস দাসের একটি পোলট্রি ফার্ম রয়েছে। চুরি ঠেকাতে তাঁরা ওই ফার্মের বেড়ায় বৈদ্যুতিক তার জড়িয়ে রেখেছিলেন। ফুল পাড়তে গিয়ে সেই তারেই হাত লেগে যায় চন্দনা ও রিয়ার। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চন্দনাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর রিয়াকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

পুলিশ জানায়, মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই ময়নাগুড়ি-মালবাজার সড়ক অবরোধে বসেন গ্রামবাসীরা। পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়িতে চড়াও হন। পুলিশ গেলে গ্রামবাসীরা অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। পুলিশ অসিত ও তাপসকে থানায় নিয়ে যায়। বিকেলে দেহ গ্রামে পৌঁছলে উত্তেজনা বাড়ে। গ্রামবাসীদের দাবি, অসিতের বাড়িতেই মৃতদেহ সৎকার করা হবে। পুলিশ ও গ্রামবাসীদের একাংশ ওই দাবিতে আপত্তি তোলেন। শেষে পুলিশ দাবি মেনে নেওয়ায় অবরোধ ওঠে। পুলিশের উপস্থিতিতে সন্ধেয় অভিযুক্তের বাড়ির সামনেই মৃতদেহ দাহ করা হয়। মৃতার মা রত্না বর্মণ বলেন, ‘‘পঞ্চায়েত সদস্যের নামে লিখিত অভিযোগ করেছি।’’ ময়নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সজল বিশ্বাস বলেন, ‘‘খুবই দুঃখজনক ঘটনা। তবে আইন আইনের পথে চলবে।’’ অভিযুক্তদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন