বন্ধ চা বাগানে চূড়ান্তভাবে লঙ্ঘিত হচ্ছে শিশুদের অধিকার। পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের সামনেই রাজ্য শিশু সুরক্ষা আয়োগের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী এই অভিযোগ তুললেন। শিলিগুড়িতে রাজ্যের শিশুসুরক্ষা দিবসের সরকারি অনুষ্ঠানে এই অভিযোগ তোলেন তিনি। রবিবার দীনবন্ধু মঞ্চে আয়োগের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী বলেন, ‘‘বাবা-মায়েরা দাবি করেছেন, পেশকের একটি স্কুলে পড়াশোনার জন্য একটি চিরকুটে লিখে প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে। আমরা শিশুর শিক্ষার অধিকার রক্ষার নোডাল এজেন্সি। ওই স্কুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’’

বিষয়টি অবিলম্বে খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন মন্ত্রী। পাশাপাশি বন্ধ বাগানের ছাত্রছাত্রীদের কাছে পড়াশোনার জন্য পয়সা নিলে সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে সাসপেন্ড করার সুপারিশ করা হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন আয়োগের কর্ত্রী।

উত্তরবঙ্গে এই মুহূর্তে বন্ধ রয়েছে প্রায় ১২টি চা বাগান। সেখানকার শ্রমিক পরিবারগুলোর শিশুদের অবস্থা ভাল নয় বলে জানাচ্ছেন কমিশনের প্রধানরা। উত্তরবঙ্গে গত কয়েক মাসে ৬টি বন্ধ চা বাগান ঘুরে দেখেছেন আয়োগের সদস্যরা। দার্জিলিং জেলায় পানিঘাটা এবং পেশকে চা বাগান বন্ধ রয়েছে। আয়োগের উদ্বেগ, এমনিতেই বাগান বন্ধ হয়ে গেলে চূড়ান্ত দারিদ্র্যের মধ্যে সীমান্তবর্তী এলাকায় নারী ও শিশু পাচারের প্রবণতা বাড়ে। এই পরিস্থিতিতে বাচ্চারা যাতে স্কুলে অন্তত এক বেলা খেতে পারে তা নিশ্চিত করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। এখন যদি পড়াশোনার জন্য সরকারি স্কুলে টাকা নিলে বাধ্য হয়ে অনেকেই পড়াশোনা ছেড়ে দিতে পারে বলে আশঙ্কা আয়োগের সদস্যদের। 

উত্তরবঙ্গে আগে আয়োগের তরফে শুনানির ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়নি। আয়োগের সদস্যরা জানান, ১১ জুন আলিপুরদুয়ারে একটি জনশুনানিরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে শিক্ষা দফতরের প্রতিনিধিরাও থাকবে। অভিভাবকদের কাছে সমস্যা শুনে পেশকের ওই স্কুলের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। স্কুলের ডেভেলপমেন্ট ফি আদায় করার অভিযোগও পেয়েছেন তাঁরা। তবে সেটি কোনও স্কুলে তা অবশ্য বলেননি চেয়ারপার্সন। কালিম্পংয়ে শিশু সুরক্ষা কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া চালু রয়েছে বলে জানান তিনি। দার্জিলিংয়ে পর্যাপ্ত আবেদন জমা পড়েনি বলে নতুন করে বিজ্ঞাপন দিয়ে কমিটি গঠন করা হবে।

পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব সরকারি স্কুলে টাকা নেওয়ার কথা শুনে  লজ্জা প্রকাশ করেন। তাঁর কথায়, ‘‘এই ঘটনা সম্পর্কে আমাদের কেউ খবর দেয়নি। মুখ্যমন্ত্রী যেখানে স্কুলে সমস্ত রকমের সামগ্রী দিচ্ছেন, সেখানে কেন টাকা দিয়ে সরকারি স্কুলে পড়তে হবে ছাত্রছাত্রীদের? জেলাশাসকের মাধ্যমে আমি বিষয়টি খোঁজ নিচ্ছি।’’ এ দিন  অনুষ্ঠানে গায়ক সৌমিত্র রায়, জুন মাল্য, প্রসূন ভৌমিকরা উপস্থিত ছিলেন। উত্তরবঙ্গের প্রত্যন্ত এলাকায় বাইক অ্যাম্বুল্যান্স চালু করে পদ্মশ্রী পেয়েছেন সমাজসেবী করিমুল হক। স্যানিটারি ন্যাপকিন বিলি করে কলকাতায় খ্যাতি পেয়েছেন শোভন মুখোপাধ্যায়। এদের দু’জনকে এ দিন সংবর্ধনা দেওয়া হয়।