• পার্থ চক্রবর্তী
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পানীয় জল কবে হবে, এই প্রশ্নই অস্ত্র বিরোধীর

water
প্রতীকী ছবি

ছয় দশকেরও বেশি সময় আগে পুরসভার স্বীকৃতি মিলেছে। অথচ, শহরের অনেক জায়গাতেই এখনও ভরসা সেই টিউবওয়েলের জল। গত প্রায় দেড় বছর আগে বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দিতে একটি প্রকল্পের কাজ শুরু হলেও তার কাজও বিশ বাঁও জলে বলে অভিযোগ বিরোধীদের। 

তাই আসন্ন পুরভোটে আলিপুরদুয়ারে বিরোধীদের এবার অন্যতম প্রধান অস্ত্র এই পানীয় জলের সমস্যা। যে বিষয়টিকে হাতিয়ার করে প্রচারের প্রস্তুতিতে নেমে পড়েছেন তাঁরা। তবে বিষয়টি নিয়ে অবশ্য মাথা ঘামাতে নারাজ শাসক দলের নেতারা। বরং তাঁদের আমলেই যে শহরের বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে, সেই কথা মানুষের কাছে তুলে ধরতে চাইছেন তাঁরা।

আলিপুরদুয়ার শহরে বাড়ি বাড়ি পানীয় জল প্রকল্পের দাবি দীর্ঘদিনের। অভিযোগ, এই প্রকল্প বাস্তবায়ন না হওয়ায় প্রচুর এলাকায় এখনও ভরসা সেই টিউবওয়েল। অনেক এলাকায় সেই টিউবওয়েলের সংখ্যা পর্যাপ্ত নয় বলেও অভিযোগ। কোথাও কোথাও আবার পিএইচই-র ট্যাপকলই ভরসা বাসিন্দা। অভিযোগ সেটাও সংখ্যায় যথেষ্ট নয়। ফলে পানীয় জল নিয়ে শহরের অনেক জায়গাতেই বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে।

বিরোধীদের অভিযোগ, গত পুরভোটে তৃণমূলের প্রতিশ্রুতিগুলির মধ্যে অন্যতম ছিল বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্পের দ্রুত রূপায়ণ। তবে ওই ভোটে পুরসভার ক্ষমতায় বসে বামেরা। এক বছর পর কংগ্রেস কাউন্সিলরদের দলে টেনে তৃণমূল পুরসভার দখল নেয়। ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে ওই পুরবোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ার ঠিক আগে বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্পের শিলান্যাস হয়। সূত্রের খবর, যে কাজ এই মুহূর্তে চলছে।

বিজেপির আলিপুরদুয়ার টাউন ব্লক সভাপতি অমিতাভ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘‘গত পুরভোটের সময় তৃণমূল নেতারা প্রতিশ্রুতি দিলেও ক্ষমতায় থাকাকালীন আলিপুরদুয়ারের এই পানীয় জলের সমস্যা সমাধানে কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি। বোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পরের ভোটের কথা মাথায় রেখে এই প্রকল্পের শিলান্যাস হয়েছে। কিন্তু এই কাজ কবে শেষ হবে কেউ জানে না। আসন্ন পুরভোটের প্রচারে এই বিষয়টিকে আমরা বেশি করে তুলে ধরব।’’ 

সিপিএম নেতা তথা আলিপুরদুয়ার পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান অনিন্দ্য ভৌমিক বলেন, ‘‘তৃণমূল নেতারা তাঁদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী চার বছরে অনেক কাজই করেনি। যার মধ্যে অন্যতম পানীয় জল। কিন্তু একটা জেলা শহরে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে এখনও পানীয় জল পৌঁছে দিতে না পারাটা তৃণমূল পরিচালিত পুরবোর্ডের ব্যর্থতা। আমরা প্রচারে মানুষের কাছে বিষয়টি তুলে ধরব।’’

তৃণমূল নেতা তথা আলিপুরদুয়ার পুরসভার বিদায়ী চেয়ারম্যান আশিস দত্ত বলেন, ‘‘রাজ্যে ৩৪ বছর ও আলিপুরদুয়ার পুরসভায় ১৯ বছর ক্ষমতায় থেকেও সিপিএম পানীয় জলের ব্যবস্থা করেনি। অথচ, মাত্র চার বছর ক্ষমতায় থেকে একশো কোটিরও বেশি টাকা অনুমোদন এনে এই প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল বোর্ড। শহরের মানুষ তা জানেন। ফলে বিরোধীদের বিভ্রান্তমূলক প্রচারে লাভ হবে না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন