একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে চুরির চেষ্টার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। রবিবার গভীর রাতে কালিয়াগঞ্জ থানার বাঘনে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পিছন থেকে ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত বিপ্লব মণ্ডলের বাড়ি ঝাড়খণ্ডের উদয়া থানার জালবালু এলাকায়। একটি পাইপগান, এক রাউন্ড কার্তুজ, চারটি গ্যাস সিলিন্ডার, তিনটি অক্সিজেন সিলিন্ডার, একাধিক তার, বৈদ্যতিন সার্কিট-সহ বিস্ফোরক মেশিন ও গ্যাসাকাটারের একাধিক যন্ত্র উদ্ধার হয়েছে বলে পুলিশের দাবি। সোমবার ধৃতকে রায়গঞ্জের মুখ্যবিচারবিভাগীয় আদালতে তোলে পুলিশ। বিচারক সুরেশ সিংহ পুলিশের আবেদন মেনে ধৃতকে সাত দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

রায়গঞ্জ জেলা আদালতের সরকারি আইনজীবী নীলাদ্রি সরকার জানিয়েছেন, পুলিশ ধৃতের বিরুদ্ধে ডাকাতির চেষ্টা, বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিস্ফোরক মেশিন রাখার অভিযোগে জামিনঅযোগ্য ৩৯৯, ৪০২, ২৫ (১)এ ধারা সহ এক্সপ্লোসিভ অ্যাক্টে মামলা দায়ের করেছে। সেই কারণে, আদালত ধৃতের জামিন নাকচ করে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

উত্তর দিনাজপুরের পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানিয়েছেন, ধৃত যুবকের সঙ্গে আরও চার যুবক ওই দিন ব্যাঙ্কে চুরির ছক করেছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালাতেই ওই চার যুবক পালিয়ে যায়। পুলিশ ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে চুরিচক্রের সঙ্গে যুক্ত বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছে।

পুলিশের দাবি, রবিবার রাত ১২টা নাগাদ পুলিশ গোপনসূত্রে একটি খবরে জানতে পারে ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পিছনে একদল যুবক জড়ো হয়েছে। তারা ব্যাঙ্কের লোহার গ্রিলযুক্ত সাটার ও লোহার ভল্ট কাটার জন্য বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে হাজির হয়েছে। খবর পেয়ে কালিয়াগঞ্জ থানার সাব ইন্সপেক্টর সুশান্ত বৈষ্ণবের নেতৃত্বে একদল পুলিশকর্মী ওই এলাকায় অভিযান চালান। পুলিশকে দেখে একদল যুবক একাধিক মোটরবাইকে চেপে পালিয়ে গেলেও বিপ্লবকে ধরে ফেলে পুলিশ।

ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্তকারী পুলিশ কর্তারা দাবি করেছেন, ওই দিন দুষ্কৃতীরা চারটি গ্যাস সিলিন্ডার, তিনটি অক্সিজেন সিলিন্ডার, একাধিক তার, বৈদ্যতিন সার্কিট সহ বিস্ফোরক মেশিন ও গ্যাস কাটার দিয়ে ওই ব্যাঙ্কের লোহার গ্রিলযুক্ত সাটার কেটে ভিতরে ঢোকার ছক করেছিল। এর পরে লোহার ভল্ট কেটে টাকা চুরির ছক ছিল দুষ্কৃতীদের। ১৬ ফেব্রুয়ারি রাতে দুষ্কৃতীরা ইটাহারে গ্যাসকাটার মেশিন দিয়ে দু’টি এটিএম কেটে কয়েক লক্ষ টাকা চুরি করে পালায় বলে অভিযোগ। কয়েক মাস আগে রায়গঞ্জের রামপুর ও পানিশালায় গ্যাসকাটার দিয়ে দু’টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের লোহার জানলা ও সাটার কেটে দুষ্কৃতীরা ভিতরে ঢোকে বলে অভিযোগ। এর পরে দুষ্কৃতীরা লোহার ভল্ট কেটে কয়েক লক্ষ টাকা চুরি করে পালায় বলে অভিযোগ। প্রতিটি চুরিচক্রের সঙ্গে ধৃত ওই যুবক যুক্ত রয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের সন্দেহ।