• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতাল

হেপাটাইটিস-বি সংক্রমণে আতঙ্ক

আচমকা ছ’জন হেপাটাইটিস বি-তে আক্রান্ত হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে ডায়ালিসিস করতে যাওয়া কিডনি রোগীদের মধ্যে৷ যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, এই ঘটনায় ওই রোগীদের আতঙ্কের কোনও কারণ নেই৷

২০১৪ সালে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে ডায়ালিসিস ইউনিট চালু হয়৷ এই মুহূর্তে সেখানে পাঁচটি মেশিন রয়েছে৷ বর্তমানে ৩৬ জন কিডনির রোগী নিয়মিত সেখানে ডায়ালিসিস করান৷ তাঁদেরই ছ’জন সম্প্রতি হেপাটাইটিস বি-তে আক্রান্ত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে৷ হাসপাতালে ডায়ালিসিস করতে যাওয়া রোগীরা এ দিন ওই বিভাগের পরিকাঠামো- সহ নানা ব্যবস্থা নিয়ে ক্ষোভ জানান৷ তাঁদের অভিযোগ, ডায়ালিসিসের সময় ওই বিভাগে একজন চিকিৎসক থাকা বাধ্যতামূলক হলেও, জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে তা কখনই হয় না৷ পাশাপাশি, ওই বিভাগে বর্তমানে দু’জন মাত্র টেকনিশিয়ান থাকলেও তারা ততটা অভিজ্ঞ নন বলে অভিযোগ রোগীদের৷ একইসঙ্গে ডায়ালিসিস মেশিনের ব্যবহার নিয়েও নালিশ জানিয়েছেন তাঁরা। ৷

কিডনির রোগে আক্রান্ত সঞ্জয় সেনগুপ্ত অভিযোগ করেন, এই হাসপাতালে ডায়ালিসিসের জন্য সেভাবে সতর্কতা নেওয়া হয় না বলেই এই ঘটনা ঘটেছে ৷ তিনি বলেন, ‘‘প্রতিদিন বারো-তেরোজন কিডনির রোগী হাসপাতালে ডায়ালিসিস করাতে যান৷ কিন্তু একজনের ডায়ালিসিস হওয়ার পর  মেশিনটি ঠিকভাবে পরিষ্কার করা হয় না৷ তার জন্যই হেপাটাইটিস বি সংক্রমণ হয়েছে৷’’ একই অভিযোগ মীরা দাসেরও৷ হাসপাতালে ডায়ালিসিস করাতে আসা তাঁর স্বামীও সম্প্রতি হেপাটাইটিস বি –তে আক্রান্ত হয়েছেন৷ যদিও জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালের ডায়ালিসিস বিভাগের ইনচার্জ সন্ধ্যা ভট্টাচার্য রোগী বা রোগীর আত্মীয়দের এই অভিযোগ মানতে চাননি৷ পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য রোগীদের কাছে আবেদন জানিয়েছেন হাসপাতাল সুপার গয়ারাম নস্করও৷ হাসপাতাল সূত্রের খবর, কিডনিতে আক্রান্ত যেসব রোগী নিয়মিত হাসপাতালে ডায়ালিসিসের জন্য আসেন তিন মাস অন্তর অন্তর তাঁদের সেরোলজি পরীক্ষা করা হয়৷ সম্প্রতি ওই পরীক্ষাতে ছয় জনের হেপাটাইটিস বি ধরা পড়েছে৷ সুপারের দাবি, পরীক্ষায় কয়েকজনের হেপাটাইটিস বি ধরা পড়লেও তাঁদের শরীরে তা ক্ষতি করবে না৷ তাই রোগীরা যেন আতঙ্কিত না হন৷

তবে তাঁর বক্তব্য, কিডনির রোগীদের ব্লাড ট্র্যান্সমিশন করতে হয়৷ পাশাপাশি নানান ইঞ্জেকশনও নিতে হয়৷ সেখান থেকেও সংক্রমণ হয়ে থাকতে পারে৷ তবে ডায়ালাইজার মেশিন নিয়ে যখন অভিযোগ উঠেছে, তখন বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ডায়ালিসিস বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, কয়েজন হেপাটাইটিস বি-তে আক্রান্ত হওয়ায় পাঁচটির মধ্যে একটি মেশিনকে আপাতত আলাদা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে৷ সেখানে শুধু মাত্র যে সব কিডনি রোগী হেপাটাইটিস বি-তে আক্রান্ত হয়েছেন তাদেরই ডায়ালিসিস হবে৷ পাশাপাশি ডায়ালিসিসের জন্য আসা সব রোগীকেই হেপাটাইটিস বি-র ভ্যাক্সিন নিতে বলা হবে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন৷

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন