• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ট্র্যাফিক ওসি-র মৃত্যুতে ধন্দ

oc
সুদীপ্তকুমার দাস। নিজস্ব চিত্র

বালুরঘাটের ট্র্যাফিক ওসি-র অস্বাভাবিক মৃত্যু হল। শুক্রবার রাতে শহরের চকভবানি এলাকার পুলিশ আবাসন থেকে বেহুঁশ অবস্থায় সুদীপ্তকুমার দাসকে (৫০) বালুরঘাট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। ওই পুলিশ আধিকারিকের পরিজনদের দাবি, রাত ২টো নাগাদ সুদীপ্ত বেশি পরিমাণে ঘুমের ওষুধ খেয়ে নেন। 

ওই ঘটনার পিছনে ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোনও সমস্যা জড়িত বলে পুলিশকর্তাদের একাংশ মনে করছেন। এ দিন মৃতের স্ত্রী সোমা জানান, সুদীপ্ত অন্তত ৩০টি ঘুমের ওষুধ খেয়ে নিয়েছিলেন। তাঁর অভিযোগ, এক মহিলা সিভিককর্মীর সঙ্গে সম্পর্কের জেরে চাপের মধ্যে ছিলেন সুদীপ্ত। সোমা বলেন, ‘‘কারও কোনও ক্ষতি না করি— এ কথা আমাকে বলে সুদীপ্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে নেন।’’ সোমার ফোন পেয়ে আবাসনের পাশেই বালুরঘাট থানা থেকে সহকর্মীরা গিয়ে সুদীপ্তকে অ্যাম্বুল্যান্সে হাসপাতালে নিয়ে যান।

দক্ষিণ দিনাজপুরের পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত জানান, মৃতদেহের ময়নাতদন্ত রিপোর্টের অপেক্ষা করা হচ্ছে। সব দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এক বছর ধরে সুদীপ্ত বালুরঘাটের ট্র্যাফিক ওসি-র দায়িত্বে ছিলেন। তার আগে তিনি কুমারগঞ্জ থানার ওসি ছিলেন। তাঁর স্ত্রী দুই ছেলেমেয়েকে নিয়ে গঙ্গারামপুরে থাকেন। বালুরঘাটের চকভবানি পুলিশ আবাসনে একাই থাকতেন সুদীপ্ত। কয়েক দিন আগে গঙ্গারামপুর থেকে সোমা ও তাঁদের ছেলেমেয়ে বালুরঘাটে আবাসনে আসেন। বৃহস্পতিবার রাতে আবাসনে ফেরেন ট্র্যাফিক ওসি। এর পরে গভীর রাতে ঘুমের ওষুধ খান।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন