মন্ত্রী গৌতম দেব প্রশ্ন তুলেছিলেন মেয়রের ‘লেভেল’ নিয়ে। বলেছিলেন, মেয়র অশোক ভট্টাচার্য তাঁর ‘লেভেল’-এ পড়েন না। মেয়রের বক্তব্যের জবাব দেবেন বিরোধী দলনেতা। এ কথা বলে মন্ত্রী নিজেকেই ছোট করলেন বলে অভিযোগ মেয়রের। শনিবার মেয়রের দাবি, সম্প্রতি বিধানসভায় পুর আইন বিষয়ে তাঁর বক্তব্য শুনে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম পর্যন্ত জানান, ‘‘অশোকদার কাছ থেকে আমার অনেক কিছু শেখার আছে। অশোকদা আমার গুরু। যতটুকু শিখেছি ওঁর কাছে শিখেছি।’’ 

মেয়র এ দিন বলেন ‘‘যিনি এ ধরনের কথা বলেন, তাঁর কোনও কথার জবাব দিতে চাই না। কয়েক দিন আগে বিধানসভায় যখন পুর আইন নিয়ে বক্তব্য দিয়েছি তখন গৌতমবাবুও ছিলেন। জবাবে তাঁর দলের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম কী বলেছেন, তিনি জানেন।’’ 

এ দিনও গৌতম দেব বলেন, ‘‘মেয়রের বক্তব্য নিয়ে কোনও কথা শুনতে চাই না। তা নিয়ে কিছু বলব না। যা বলার বিরোধী দলনেতা বলবেন।’’

সম্প্রতি বিধান মার্কেটে অবৈধ নির্মাণ নিয়ে পর্যটনমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, কোটি কোটি টাকা কামাচ্ছে কিছু লোক। তা ভাঙার নির্দেশ দিলে তাকে স্বাগত জানান মেয়র। তবে কটাক্ষও করেন যে, মন্ত্রী ‘বাস ফেল’ করেছেন। মন্ত্রীর উষ্মায় ক্ষুব্ধ কাউন্সিলর নান্টু পাল আবার অভিযোগ করেন, পর্যটনমন্ত্রীর বক্তব্যে তাঁর দিকে ইঙ্গিত করা হয়েছে। তাই তাঁর এবং তাঁর স্ত্রীর (যিনি স্থানীয় কাউন্সিলর) আত্মসম্মানে লেগেছে। এই নিয়ে মেয়র মন্ত্রীর প্রতি প্রশ্ন রাখলে মন্ত্রী পাল্টা ‘লেভেল’ প্রসঙ্গ তুলে মেয়রকে খোঁচা দেন মন্ত্রী। 

অন্য দিকে, ২১ জুলাইয়ের সভায় থাকতে কলকাতা গিয়েছেন নান্টু পাল। তিনি জানান, সময় সুযোগ হলে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে বিধান মার্কেটের বিষয়টি জানাবেন। পর্যটনমন্ত্রীও মুখ্যমন্ত্রীকে বিধান মার্কেট নিয়ে নোট দেবেন বলে জানিয়েছিলেন। এ দিন তিনি বলেন, ‘‘যেখানে জানানোর জানিয়েছি। তা নিয়ে সংবাদমাধ্যমে বলার কিছু নেই।’’