• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘বিরোধ’ এড়াতে জেলার কমিটিতে সব পক্ষই

TMC
প্রতীকী ছবি।

বিধানসভা ভোটের আগে দলের কোনও দ্বন্দ্ব যেন মাথাচাড়া না দেয়, সে জন্য ‘সব পক্ষকে’ রেখেই মালদহে তৃণমূলের জেলা কমিটি গড়ার আভাস মিলেছে। দলীয় সূত্রে অন্তত এমনই খবর। জানা গিয়েছে, প্রায় একশো জন নেতাকে প্রস্তাবিত জেলা কমিটিতে ঠাঁই দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে দলের জেলা কোর কমিটির পাঁচ জনের বৈঠকে জেলা কমিটির চূড়ান্ত তালিকা তৈরি করে অনুমোদনের জন্য রাজ্য কমিটিতে পাঠানোও হয়েছে। 

দলীয় সূত্রে খবর, সম্প্রতি কলকাতায় জেলার দলীয় ১৫টি ব্লক ও দুটি শহর কমিটির সভাপতির নাম চূড়ান্ত করা নিয়ে জেলা কোর কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছিল। কিন্তু সেই ব্লক সভাপতিদের নামের তালিকা এখনও ঘোষণা করেনি দলের রাজ্য কমিটি। যদিও নামের একটি তালিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ভাইরাল’ হয়। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ব্লক সভাপতিদের নামের তালিকা আগে প্রকাশ করা হলে ফের দ্বন্দ্ব ও ক্ষোভ-বিক্ষোভ প্রকাশ্যে আসতে পারে। সে কারণে যে বা যাঁরা ব্লক সভাপতি পদের দাবিদার থেকে ছিটকে যাবেন, তাঁদেরও জেলা কমিটিতে রেখে ব্লক ও জেলা কমিটি একসঙ্গে ঘোষণা করা হতে পারে। দলের যুব সংগঠনের জেলা কমিটি ও ব্লক সভাপতিদের তালিকাও একসঙ্গে ঘোষণা করা হতে পারে।

গত লোকসভা ভোটের ফলাফলের পরে মালদহে দলের জেলা কমিটি ভেঙে দেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময় মৌসম নুরকে জেলা সভাপতি, মোয়াজ্জেম হোসেনকে চেয়ারম্যান ও বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়কে কার্যকরী সভাপতি করে তিন জনের জেলা কমিটি গড়ে দেন দলনেত্রী। কয়েক মাস আগে জেলায় দল পরিচালনার জন্য পাঁচ জনের কোর কমিটি গড়ে রাজ্য কমিটি। তাতে মৌসম সভাপতি, মোয়াজ্জেম চেয়ারম্যান এবং মানব বন্দ্যোপাধ্যায়, দুলাল সরকার ও অম্লান ভাদুড়িকে কো-অর্ডিনেটর করা হয়। 

দলীয় সূত্রে খবর, এর পরে নতুন জেলা কমিটির তালিকা তৈরি করে কয়েক বার রাজ্যে পাঠানো হলেও তা আর ঘোষণা করা হয়নি। 

দলীয় সূত্রে খবর, জেলা কমিটির প্রস্তাবিত তালিকা চূড়ান্ত করতে মঙ্গলবার রাতে দলের জেলা কার্যালয় নুর ম্যানসনে কোর কমিটির পাঁচ জন বৈঠকে বসেন। সেখানে সেই তালিকা চূড়ান্ত করা হয় এবং রাতেই সেই তালিকা রাজ্য কমিটির কাছে পাঠানো হয়েছে।

দলের অন্দরমহল সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রস্তাবিত ওই কমিটির তালিকাতে জেলায় দলের প্রায় একশো জন নেতাকে রাখা হয়েছে। সহ-সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে অন্তত ১৫-২০ জনকে রাখা হয়েছে। 

দলীয় এই বৈঠক নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলতে চাননি জেলা তৃণমূল সভাপতি মৌসম। তিনি শুধু বলেন, “এটা দলের সাংগঠনিক ও অভ্যন্তরীণ বৈঠক।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন