• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দলনেত্রীর বার্তায় পথে তৃণমূল

TMC
ফাইল চিত্র

করোনা আবহে অনলাইনে লাগাতার বৈঠক চলছে বিজেপির। রাস্তায় নেমে চলছে আন্দোলনও। তার জেরে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভিডিয়ো বৈঠকের বার্তার পরেই মালদহে লাগাতার দলীয় কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ নিল তৃণমূল। দলীয় সূত্রে খবর, ৬ জুলাই থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে কর্মসূচি পালন করবে জেলা তৃণমূল। কর্মসূচির দিন চুড়ান্ত করে সোশ্যাল মাধ্যমে বুথ স্তর পর্যন্ত সেই নির্দেশ পাঠিয়েছেন জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

গত বিধানসভা এবং লোকসভা নির্বাচনে জেলায় তৃণমূল আশানুরূপ ফল করতে পারেনি। মালদহ সফরে এসে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তৃণমূলনেত্রী। শুক্রবার ভিডিয়ো বৈঠকেও মালদহের ফলাফল নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। দলের নেতাদের একযোগে কাজ করার বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি লাগাতার মানুষের পাশে থাকার নির্দেশও দেন। পেট্রোল, ডিজেল থেকে শুরু করে রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে নাজেহাল সাধারণ মানুষ। মানুষের এই ক্ষোভকে কাজে লাগাতে লাগাতার আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়েছে তৃণমূল শিবির। জুলাই মাস জুড়ে জেলার প্রতিটি বুথে ওই কর্মসূচি পালন করা হবে বলে জানিয়েছে জেলা তৃণমূল। রাস্তায় নেমে আন্দোলনের বার্তা দেওয়া হয়েছে। দলীয় সূত্রে খবর, করোনা আবহে অনলাইন বৈঠকে গুরুত্ব দিচ্ছে গেরুয়া শিবির। ব্লক, অঞ্চল স্তরেও চলছে ভিডিয়ো বৈঠক। এ বার তার পাল্টা হিসেবে পথে নামছে তৃণমূল।

তৃণমূল শিবিরের দাবি, ৬ জুলাই পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ, ৭ জুলাই বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে স্টেশনে অবস্থান বিক্ষোভ, ৮ জুলাই রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে, ৯ জুলাই কোল ইন্ডিয়ার বেসরকারিকরণ এবং ১০ জুলাই কো-অপারেটিভ নিয়ে জেলা জুড়ে অবস্থান বিক্ষোভ, মিছিল চলবে। প্রতিটি বুথেই নেতা-কর্মীরা বাড়িতে বসে ডিজেল, রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পোস্টার হাতে নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভ করবেন। পাশাপাশি রাজ্যের উন্নয়নমূলক প্রকল্পের প্রচারও চালানো হবে। তা হবে ১১-১৩ জুলাই। ২১ জুলাইও প্রতি বুথে পালন করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা রাজ্যসভা সাংসদ মৌসম নূর। তিনি বলেন, “করোনা আবহেও কেন্দ্রীয় সরকার জ্বালানির দাম বাড়িয়ে চলেছে। তার প্রতিবাদে লাগাতার আন্দোলন চলবে।” জেলা বিজেপি সভাপতি গোবিন্দচন্দ্র মণ্ডল বলেন, “কেন্দ্রীয় সরকার সাধারণ মানুষকে কী কী সুবিধা দিচ্ছে তা তো সবাই দেখতেই পাচ্ছেন। তৃণণূলের কাছে থেকে মানুষ কিছুই পাচ্ছেন না।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন