অযোধ্যার বামনি ঝোরায় হড়পা বানে আটকে পড়া দুই পড়ুয়াকে উদ্ধারের ঘটনায় উদ্ধারকারী দলের প্রত্যেককে পুরস্কৃত করা হল। শুক্রবার অযোধ্যাপাহাড়ে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্ধারকারী দলের মোট ছ’জনের হাতে পুরস্কার তুলে দেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র। ওই ছ’জন হলেন বাঘমুণ্ডি থানায় কর্মরত রাজ্য পুলিশের দুই এএসআই নাজমুল হুদা, জয়ন্ত চক্রবর্তী, দুই কনস্টেবল বিপ্লব সিং, সাহেব চাঁদ এবং গ্রামীণ পুলিশ রূপসিং মুর্মু, সিভিক ভলান্টিয়ার ভিপি সিং লায়া। 

জেলার পাঁচ কলেজ পড়ুয়া গত ২৫ জুলাই অযোধ্যাপাহাড় এলাকায় ঘুরতে গিয়েছিলেন। বৃষ্টিতে বামনি ঝোরায় জল বাড়তে শুরু করায় বাকিরা উঠে গেলেও দু’জন ঝোরার মধ্যে উঁচু পাথরের উপরে আটকে পড়েন। পাহাড়ের বৃষ্টিতে হড়পা বানে তখন ঝোরায় জলস্তর অনেক বেড়ে গিয়েছিল। সঙ্গে ছিল তীব্র স্রোত। 

খবর পেয়ে এলাকায় গিয়ে তুমুল বৃষ্টির মধ্যে ওই দু’জনকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উদ্ধার করে বাঘমুণ্ডি থানার পুলিশের একটি দল। দলে বাঘমুণ্ডি থানার ওসি রজত চৌধুরী-সহ মোট সাত জন থাকলেও শুক্রবার পাহাড়ের পুরস্কার প্রদানের ওই অনুষ্ঠানে ওসি উপস্থিত থাকতে পারেননি। অনুষ্ঠানে ডিজি ছাড়াও ছিলেন রাজ্য পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তারা। ছিলেন পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন) ধৃতিমান সরকার, এসডিপিও (ঝালদা) সুমন্ত কবিরাজ প্রমুখ। পুরুলিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন) ধৃতিমান সরকার বলেন, ‘‘জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সে দিন দু’জনের জীবন বাঁচিয়েছিলেন উদ্ধারকারীরা। সাহসিকতার জন্যই পুরস্কার।’’