ফের বিতর্কে বিজেপির বীরভূম জেলা সম্পাদক কালোসোনা মণ্ডল। হাতে লাঠি-সোটা তুলে নেওয়ার নিদান দিলেন  তিনি। এবার বীরভূমের নলহাটি থানার শীতলগ্রামের অনুষ্ঠানে ওই নিদান দেন তিনি। সোমবার বিকেলে নলহাটি-২ ব্লকের শীতলগ্রামে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিভিন্ন দল থেকে বহু মানুষকে বিজেপিতে যোগদান করানো হয়। ওই সভায় কালোসোনা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায়, নলহাটি ব্লক সভাপতি ঝলক মণ্ডল, নিখিল বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন নলহাটি-২ ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম থেকে প্রায় দুই হাজার কর্মী সমর্থক বিজেপিতে যোগদান করেন।

রামকৃষ্ণ রায় বলেন, “এদিন বিভিন্ন দল থেকে আমাদের দলে কর্মী সমর্থকেরা এসেছেন। আমরা তাদের সাদরে গ্রহণ করেছি। এছাড়া এদিন সংখ্যালঘু অধ্যুষিত বিরলচৌকি গ্রামে একটি দলীয় অফিস খোলা হয়েছে।” অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপির জেলা সম্পাদক তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ করে বলেন, “অস্ত্র নয়, লাঠি-সোটা নিয়ে সামনে আসুন। পুলিশ যেখানেই থাক। আমরা যদি তৃণমূলের কার্যকর্তাদের মেরে না তাড়াতে না পারি তাহলে রাজনীতি করা ছেড়ে দেব। তোমাদের যাবার সময় হয়ে গিয়েছে।” 

তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব ভট্টাচার্য বলেন, “বিজেপির ওই নেতা বিভিন্ন শান্তিপূর্ণ এলাকায় গিয়ে উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখতে গিয়ে এলাকায় অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। তিনি একটি রাজনৈতিক দলের নেতা। তিনি রাজনৈতিক বক্তব্য রাখবেন। কিন্তু তিনি অকারণে বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে গ্রামের মানুষের মধ্যে লড়াই লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। এরপর যদি কোথাও অশান্তির সৃষ্টি হয় তার দায় কালোসোনা মণ্ডলকে নিতে হবে।’’