রোজ ভ্যালির ‘ফ্রিজ’ করে দেওয়া অ্যাকাউন্টগুলি পুনরায় চালু করার দাবি নিয়ে বৃহস্পতিবার দুই জেলায় সভা, মিছিল করল সংস্থার কর্মী সংগঠন। গ্রাহক পরিষেবা চালু রাখতে সংস্থার যে সব অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করা হয়েছে তা পুনরায় চালু করতে হবে, সংস্থার যে সব সম্পত্তির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে, এমনই নানা দাবি নিয়ে এ দিন পুরুলিয়া জেলা প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হল। রোজভ্যালি সংস্থার প্রতিনিধি ও কর্মীদের ‘জয়েন্ট ফোরাম অফ রোজভ্যালি’ এই আন্দোলনে নেমেছে।

সংগঠনের পক্ষে বিশ্বজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় দাবি করেন, ‘‘রাজ্য জুড়ে সংস্থার প্রায় ২৬০০টি অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে গ্রাহক পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। গ্রাহক পরিষেবা চালু রাখতে আমরা সারকারের কাছে প্রশাসনের মাধ্যমে ওই অ্যাকাউন্টগুলি ফের চালু করার দাবি জানিয়েছি।’’ চেয়ারম্যান গৌতম কুণ্ডুকে অন্যায় ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে তাঁরা প্রতিবাদ জানান। পুরুলিয়ার অতিরিক্ত জেলাশাসক (সাধারণ) সবুজবরণ সরকার বলেন, ‘‘ওঁদের স্মারকলিপি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’’  একই দাবিতে বাঁকুড়া শহরের তামলিবাঁধ এলাকায় সভা করে জেলাশাসকের দফতরে স্মারকলিপি দেয় সংস্থার এই জেলার কর্মী সংগঠন। গোটা জেলা থেকে শতাধিক কর্মী এসেছিলেন। তাঁরা আমানতকারীদের টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করারও দাবি জানিয়েছেন।