জেলা নির্বাচন দফতর আয়োজিত ‘ইএলসি ফিউচার ইলেক্টরস ফুটবল লিগ’ শুরু হল মঙ্গলবার।  সিউড়িতে জেলা ক্রীড়া সংস্থার মাঠে আয়োজিত লিগের প্রথম খেলায় বীরভূম জেলা স্কুল ২-০ গোলে হারাল বাণীমন্দির অমৃতারঞ্জন শিক্ষানিকেতনকে। লিগের উদ্বোধনী খেলার সূচনা করেন জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা বসু। ছিলেন অতিরিক্ত জেলাশাসক (ইলেকশন) রঞ্জনকুমার ঝা, অতিরিক্ত জেলাশাসক (জেলা পরিষদ) দীপ্তেন্দু বেরা, মহকুমাশাসক (সিউড়ি) কৌশিক সিংহ, ওসি ইলেকশন সৈকত হাজরা। খেলার প্রথমার্ধে দাপিয়ে খেলে ২ গোল করে জেলাস্কুল। পরে বাণীমন্দির ১ গোল শোধ করে ব্যবধান কমালেও পরাজয় আটকাতে পারেনি।

জাতীয় নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে ভবিষ্যতের ভোটার তথা ১৪ থেকে ১৭ বছরের পড়ুয়াদের সচেতন করতে দেশের স্কুলে স্কুলে নির্বাচনী সাক্ষরতা ক্লাব (ইলেক্টরাল লিটারেসি ক্লাব) তৈরির কাজ চলছে। শুধু স্কুল নয়, ভোট প্রক্রিয়া সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা দিতে সব বয়সের মানুষকে সচেতন করতেও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।  উদ্দেশ্য, সকলকে বোঝানো প্রতিটি ভোট গুরুত্বপূর্ণ, এক জন ভোটারও যেন নির্বাচনী প্রক্রিয়ার বাইরে না থাকেন। বীরভূমেও স্কুলে স্কুলে নির্বাচনী সাক্ষরতা ক্লাব গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। অস্ত্র করা হয়েছে ফুটবলকে। যে যে স্কুলে ক্লাব গড়া হবে, প্রাথমিক ভাবে এমন ৭টি স্কুল ও দেশের সেরা বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন পড়ুয়াদের ফুটবল দল মিলিয়ে আটটি দল নিয়ে লিগের আয়োজন করেছে জেলা নির্বাচন দফতর। ১৯ জুলাই সংশ্লিষ্ট স্কুলগুলির প্রধান শিক্ষক, ক্রীড়া শিক্ষক ও ফুটবল দলের সদস্যেদের উপস্থিতিতে চমক দিয়েছিল প্রশাসন। সে দিনই  প্রতিযোগিতার সূচি, চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স ট্রফি প্রকাশ, প্রতিটি দলের নামাঙ্কিত জার্সির উদ্বোধন, দু’টি করে ম্যাচ বল দেওয়া, গ্রুপ ফোটোসেশন হয়। মঙ্গলবার থেকে শুরু হল লিগ। দু’টি স্কুলের পড়ুয়া সমানে উৎসাহ দিয়ে গেল তাদের স্কুলের খেলোয়ারদের।

প্রশাসন বলছে, খেলার উৎসাহের মধ্যেই একটু একটু করে ‘ইলেক্টরাল লিটারেসি ক্লাব’ গঠনের বিষয়ে আগ্রহী হবে পড়ুয়ারা।