• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আচমকা বালি খাদানে ডিএম

District Magistrate
একসঙ্গে: ইন্দাসে জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস। নিজস্ব চিত্র

ইন্দাসে বুধবার প্রশাসনিক বৈঠক ছিল। তার আগে সকালেই, আচমকা, সোমসায়রে দামোদরের বালি খাদান পরিদর্শনে গেলেন বাঁকুড়ার জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস। সঙ্গে ছিলেন মহকুমাশাসক (বিষ্ণুপুর) মানস মণ্ডল, বিডিও (ইন্দাস) মানসী ভদ্র চক্রবর্তী এবং জেলা প্রশাসনের আধিকারিকেরা। জেলাশাসক জানান, খাদানে বেআইনি কিছু পাওয়া যায়নি। নিয়ম মেনেই কাজ চলছে। 

বিভিন্ন দফতরের মধ্যে সমন্বয়ের অভাব সরকারের ভাবমূর্তিতে প্রভাব ফেলছে বলে বলে সম্প্রতি নবান্নে উষ্মা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই বৈঠকেই মুখ্যসচিব রাজীব সিংহ প্রত্যন্ত এলাকায় যেতে বলেন জেলাশাসক ও বিডিও-দের। তার পরে বাঁকুড়ার জেলাশাসক বিভিন্ন দফতরের আধিকারিকদের ডেকে তাঁদেরও সপ্তাহের নির্দিষ্ট দিনে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে কাজের অগ্রগতি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন। মুখ্যসচিবের নির্দেশের পরে গত শুক্রবার তিনি প্রথম পর্যালোচনা বৈঠকে গিয়েছিলেন রানিবাঁধে। তার পরে, এ দিন ইন্দাস।

বুধবার বালি খাদান পরিদর্শনের পরে সোমসায়রেরই একটি প্রাথমিক ও একটি মাধ্যমিক স্কুল ঘুরে দেখেন জেলাশাসক। প্রশাসনের একটি সূত্রের দাবি, সেখানের কাজকর্মে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন তিনি। তার পরে রোল অঞ্চলে গিয়ে সেখানকার কাজকর্ম পরিদর্শন করেন। সেখান থেকে যান ইন্দাস ২ পঞ্চায়েতের জেজারপাড় গ্রামে। একশো দিনের কাজে একটি পুকুর কাটা চলছিল। যে পরিমাণ মাটি কাটতে হচ্ছে তাতে তাঁদের সমস্যার কথা জেলাশাসককে জানান কিছু বয়স্ক মানুষজন। বিষয়টি রাজ্যস্তরে জানানোর আশ্বাস দিয়েছেন জেলাশাসক।

এ দিন দুপুরে ইন্দাস ব্লক অফিসে স্বাস্থ্য, কৃষি প্রভৃতি বিভাগের আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন জেলাশাসক। প্রশাসনের একটি সূত্রে জানা যায়, কড়িশুণ্ডা ও রোল পঞ্চায়েতের একশো দিনের কাজে বিশেষ স্কিমের কথা বলেছেন তিনি। ইন্দাস হাসপাতাল থেকে বাইরে রেফার করা নিয়েও নানা কথা জানতে চান। স্বাস্থ্য দফতর জানায়, ইন্দাস ব্লক হাসপাতালে রোগীর তুলনায় শয্যা সংখ্যা কম। তাই এই সমস্যা। দীঘলগ্রাম স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বেহাল ভবন নিয়েও এ দিনের বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। উঠেছিল খোসবাগ থেকে শান্তাশ্রম যাওয়ার রাস্তা দ্রুত খারাপ হয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গ। সূত্রের খবর, এই ব্যাপারে তদন্তের কথা বলেছেন জেলাশাসক।

এর পরে সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পে চার জনের হাতে সাহায্য তুলে দেওয়া হয়। পরে জেলাশাসক বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশেই ব্লকে পরিদর্শন ও প্রশাসনিক বৈঠক হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন