চমক দিতে চায় সবাই
অন্যদিকে মনোনয়ন দাখিলের দিন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে এনে চমক দিতে চাইছে তৃণমূল।
tmc

তৃণমূল কর্মীদের জন্য তৈরি হচ্ছে ব্যাজ। ছবি: অভিজিৎ সিংহ

মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার পথে চমক দিতে চাইছে তৃণমূল ও বিজেপি। অন্যদিকে, জমজমাট মিছিলের জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছে সিপিএম।

মঙ্গলবার থেকেই বাঁকুড়া ও বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর্ব শুরু হয়েছে। আজ বুধবার জেলার দু’টি কেন্দ্রেরই সিপিএম ও তৃণমূল প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা। জেলা সিপিএম নেতৃত্ব জানান, সকাল ১০টা নাগাদ সিপিএমের জেলা কার্যালয় থেকে দুই প্রার্থীকে নিয়ে মিছিল করে জেলাশাসকের দফতরে যাওয়ার কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। সিপিএমের জেলা সম্পাদক অজিত পতি বলেন, “দু’টি কেন্দ্র থেকেই কয়েক হাজার কর্মী মিছিলে যোগ দিতে আসবেন। প্রার্থীদের নিয়ে জেলাশাসকের অফিসে যাব আমরা।” 

অন্যদিকে মনোনয়ন দাখিলের দিন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে এনে চমক দিতে চাইছে তৃণমূল। দলীয় সূত্রে খবর, সকালে হেলিকপ্টারে চড়ে কলকাতা থেকে বাঁকুড়ায় আসার কথা অভিষেকের। শহরের লালবাজার এলাকার হিন্দু স্কুল মাঠ থেকে মিছিল করে জেলাশাসকের দফতরে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তৃণমূলের। হুড খোলা জিপে বাঁকুড়া ও বিষ্ণুপুরের প্রার্থীদের নিয়ে থাকার কথা অভিষেকের। 

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক জয়দীপ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন অভিষেক থাকবেন শুনে দলীয় কর্মীরা উৎসাহী। মহামিছিল করে আমরা জেলাশাসকের দফতরে যাব।” 

বিজেপি সূত্রের খবর, আগামিকাল বৃহস্পতিবার জেলার দু’টি কেন্দ্রের দলীয় প্রার্থীরা মনোনয়ন দাখিল করবেন। মনোনয়ন পেশের সময় বিজেপি চমক দেবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন দলের বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলা সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র। তিনি বলেন, “ইতিহাস হয়ে থাকবে এবারের লোকসভা ভোট। তাই আমাদের প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিনেও মানুষের নজর কাড়ব আমরা।” 

গত জানুয়ারিতে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন বিষ্ণুপুরের বিদায়ী সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এবার তিনি ওই কেন্দ্র থেকে বিজেপির প্রার্থী। দল বদলের পরেই সৌমিত্রের বিরুদ্ধে চাকরির ‘টোপ’ দিয়ে টাকা তোলা, বালি চুরি, বেআইনি অস্ত্র রাখার মতো নানান অভিযোগ ওঠে হয়। সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্ট নির্দেশ দেয়, ছ’সপ্তাহ সৌমিত্র জেলায় ঢুকতে পারবেন না। এই রায়ের বিরুদ্ধে সৌমিত্র সুপ্রিম কোর্টে গেলে তাঁকে মনোনয়ন জমার জন্য একদিন জেলায় ঢোকার অনুমতি দেয় সর্বোচ্চ আদালত। 

মনোনয়ন পত্র দাখিল করতে বৃহস্পতিবার জেলায় আসছেন সৌমিত্র। সেদিন সৌমিত্র কোনও চমক দিতে পারেন কি না সেদিকে তাকিয়ে রয়েছে রাজনৈতিক মহল। 

সৌমিত্র বলেন, “জেলায় ঢুকে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়াই আমার প্রথম লক্ষ।” 

বুধবার মনোনয়ন পত্র দাখিল করার কথা পুরুলিয়ার কংগ্রেস প্রার্থী নেপাল মাহাতোর। ওই কেন্দ্রের বামফ্রন্ট প্রার্থী বীরসিংহ মাহাতোও বুধবার মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন বলে জানা গিয়েছে। বাম প্রার্থী জানান, পুরুলিয়া ষ্টেশন থেকে তাঁদের কর্মী সমর্থকেরা মিছিল করে জেলাশাসকের অফিসে যাবেন। তারপর মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া হবে। নেপালবাবুও মিছিল করে মনোনয়নপত্র জমা দেবেন।