ছবির মতো সুন্দর জায়গাগুলো তছনছ হয়ে গিয়েছে বন্যায়। খুদে পড়ুয়ারা তাদের আঁকা ছবি বিক্রি করেই কেরালার মানুষদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এল।

বুধবার বাঁকুড়া শহরের ওয়েস্ট পয়েন্ট স্কুলের ৬০ জন ছাত্রছাত্রী বসেছিল মাচানতলার মুক্তমঞ্চে। রঙ-তুলি হাতে সেখানেই তারা এঁকেছে ছবি। নিয়ে গিয়েছে পথচারিদের কাছে। জানিয়েছে, কোনও নির্দিষ্ট দাম নেই। ছবির জন্য কৌটয় যত টাকা দেবেন সেটা তারা কেরলে পাঠাবে। 

দিনের শেষে পড়ুয়াদের তহবিলে জমা হয়েছে প্রায় ৬,৫০০ টাকা। অনলাইনে সেই টাকা কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ওই স্কুলের অধ্যক্ষ অরিন্দম মাঝি। তিনি জানাচ্ছেন, পড়ুয়ারাই তাঁদের কাছে এসে নিজেদের পরিকল্পনা কথা জানিয়েছিল। স্কুলের তরফে তাদের সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়। তিনি বলেন, ‘‘ওরা যে ভাবে মানুষের দুঃখ-কষ্টের কথা ভেবে নিজেরা এগিয়ে এসেছে তাতে আমরা খুবই খুশি।’’ 

এ দিন ওই স্কুলের পড়ুয়ারা তুলি আর কৌটো হাতে হাজির হয়েছিল মুক্তমঞ্চের সামনে। সকাল ৮টা থেকে বেলা প্রায় সাড়ে ১২টা পর্যন্ত চলেছে ত্রাণ সংগ্রহ। তারা জানাচ্ছে, দিনের শেষে প্রায় দু’শো ছবি বিক্রি হয়েছে। পড়ুয়াদের মধ্যে মণীষা দে, সপ্তর্থী গোস্বামী, নিলাঞ্জন পালেরা বলে, ‘‘আমরা খবরে কেরলের কথা জানতে পেরে ঠিক করেছিলাম কিছু একটা করতে হবে। সেই মতো সবাই মিলে কথা বলে ঠিক করি, ছবি বিক্রি করে যতটা পারা যায় টাকা তুলব।’’ 

এ দিন পড়ুয়াদের থেকে ছবি কিনেছেন শহরের বাসিন্দা রীতেশ সিংহ, অরূপ দত্তের মতো অনেকে। রীতেশ বলেন, ‘‘ওদের এই উদ্যোগটাই ভাল লাগল। আর কী সুন্দর ছবি এঁকেছে ছোটছোট ছেলেমেয়েগুলো!’’