স্বাদবদল। মিড-ডে মিলের ‘মেনু’তে ডাল, ভাত, সব্জির পরিবর্তে আম-কাঁঠাল। 

শুক্রবার মানবাজার ১ চক্রের গোবিন্দপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের পাতে দেওয়া হয়েছিল আম, কাঁঠাল, পেয়ারার মতো ফল। স্বাদবদল হওয়ায় খুশি পড়ুয়ারা। 

জাতীয় শিক্ষকের সম্মানে ভূষিত ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক অমিতাভ মিশ্র বলেন, ‘‘খুদে পড়ুয়ারা  বৈচিত্রের সন্ধান করে। মাঝেমধ্যে স্বাদবদল প্রয়োজন।’’ তিনি জানান, স্কুলের বাগানে আম কাঁঠালের গাছ রয়েছে।  স্কুলের তিন জন শিক্ষক-শিক্ষিকা বাজার থেকে আরও কিছু ফল কিনেছিলেন।  এর আগে শীতের মরসুমে স্কুলের পড়ুয়াদের পাতে দেওয়া হয়েছিল পিঠে। 

স্কুলের দুই শিক্ষিকা মৌমিতা সরকার সেন এবং সুপ্রিয়া মোহান্তি বলেন, ‘‘বেশির ভাগ স্কুল পড়ুয়ার অভিভাবকই কৃষিশ্রমিক। মাঝেমধ্যে ফল জুটলেও এই ভাবে সকলে এক সঙ্গে বসে ফলাহারের সুযোগ তারা পায় না।’’ অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক নন্দদুলাল সিংহের বক্তব্য, ‘‘পড়াশোনা, খেলাধুলা, বিজ্ঞান শিক্ষায় বৈচিত্র আনার চেষ্টা হয় ওই স্কুলে। শিশু মনে এর ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। এ বার এক দিনের জন্য হলেও খাবারে বৈচিত্র এসেছিল। এই ধরনের উদ্যোগ পড়ুয়াদের মনে বাড়তি উৎসাহের সঞ্চার ঘটে।  শিক্ষক-পড়ুয়া সম্পর্ক আরও ভাল হয়।’’