এক বিজেপি কর্মীর বাড়ির সামনে বোমাবাজির অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মারধরের পাশাপাশি মহিলাদের হেনস্থারও নালিশ। নানুরের সাঁতরা গ্রামে। তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার রাত ১০টা নাগাদ গ্রামের বাগদিপাড়ায় বিজেপি কর্মী মাধব মাঝির বাড়ির সামনে একদল দুষ্কৃতী দু’টি বোমা ছোড়ে বলে অভিযোগ। হামলার ভয়ে প্রথমে ওই বাড়ির লোকেরা বাইরে বের হননি। অভিযোগ, দুষ্কৃতীরা গালিগালাজ করতে শুরু করে। ওই পরিবারের মহিলারা বাড়ির উঠোনে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করেন। অভিযোগ, এর পরে দুষ্কৃতীরা বাড়ির পাঁচিল টপকে ভিতরে ঢুকে মহিলাদের হেনস্থা করে। তখনই বাইরে বেরিয়ে বাড়ির লোকেরা। দুষ্কৃতীরা ফের বোমা ছোড়ে। অভিযোগ, তাতে এক বিজেপি কর্মী আহত হন। লাঠি, ছুরিতে আরও পাঁচ জন আহত হন বলে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ গ্রামে যায়।

বিজেপির নানুর মণ্ডল কমিটির সভাপতি বিনয় ঘোষের নালিশ, ‘‘বিজেপি করায় আমাদের কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতে চড়াও হয়ে বোমাবাজি করেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।’’ ওই গ্রামেরই বাসিন্দা তৃণমূলের জেলা কমিটির সদস্য তথা জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ আব্দুল কেরিম খান। তিনি বলেন, ‘‘ওই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই। মত্ত দু’জনের বচসার জেরেই বোমাবাজি হয়েছে। বিজেপি রাজনৈতিক রঙ লাগানোর চেষ্টা করছে।’’ পুলিশ জানায়, উত্তেজনা থাকায় গ্রামে নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।