Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Jadavpur University

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকস্তরে ইঞ্জিনিয়ারিং, ফার্মাসি-সহ একাধিক বিভাগে ভর্তির ফর্ম দেওয়া শুরু

২০২২-২৩ বর্ষের জন্য, খেলার কোটাতে শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৫২
Share: Save:

ইঞ্জিনিয়ারিং, ফার্মাসি-সহ একাধিক বিভাগে ভর্তির ফর্ম প্রকাশ করেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। ২০২২-২৩ বর্ষের জন্য, খেলার কোটাতে শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। নীচে আবেদনের তথ্য বিস্তারিত দেওয়া হল।

Advertisement

বিভাগ

  • কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
  • কনস্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং
  • ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • ইলেকট্রনিক্স ও টেলি-কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং
  • খাদ্য প্রযুক্তি এবং বায়োকেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • তথ্য প্রযুক্তি
  • ইনস্ট্রুমেন্টেশন এবং ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং
  • মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • ফার্মাসিপাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং
  • প্রিন্টিং ইঞ্জিনিয়ারিং
  • প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং

গুরুত্বপূর্ণ তারিখ

Advertisement

http://www.jaduniv.edu.in/ এই ওয়েবসাইটে ভর্তির আবেদন পত্র মিলবে ৩ থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত। অনলাইনে ভর্তির ফর্ম ডাউনলোড করতে হবে শিক্ষার্থীদের। এর পর অফলাইনে ফর্ম ফিল-আপ করে ১১ নভেম্বরের মধ্যে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে জমা দিতে হবে। সম্ভবত ১৬ থেকে ২১ নভেম্বরের মধ্যে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নাম ঘোষণা করা হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে।

খেলার কোটার শিক্ষার্থীদের আবেদন করার যোগ্যতা

  • পশ্চিমবঙ্গের সরকার প্রদত্ত বিদ্যালয় থেকে অথবা স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে প্রার্থীকে দ্বাদশ শ্রেণি পাশ করতে হবে বিজ্ঞান বিভাগে।
  • দ্বাদশ শ্রেণিতে পৃথক ভাবে রসায়ন, গণিত ও পদার্থ বিদ্যায় পাশ করতে হবে। এবং এই বিষয়গুলিতে নূন্যতম ৪৫ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে ও ইংরাজি বিষয়ে ৩০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে।
  • শিক্ষার্থীদের পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা পাশ করতে হবে। স্থান সাধারণ মেধা তালিকায় ৩০ হাজার এর মধ্যে থাকতে হবে।
  • খেলার কোটায় আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীদের খেলা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আবেদনের সময় জমা দিতে হবে। প্রতিটি তথ্যের সপক্ষে নথির প্রত্যয়িত নকল (অ্যাটাস্টেড) দিতে হবে।

প্রয়োজনীয় নথি

জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার র‌্যাঙ্ক কার্ড, অ্যাডমিট কার্ড, দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির মার্কশিট, এসটি, এসসি, ওবিসি প্রার্থী হলে তার শংসাপত্র,পরিবারের আয়ের শংসাপত্র, ৫টি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, মেডিক্যাল সার্টিফিকেট, খেলা সংক্রান্ত বিষয় যাবতীয় শংসাপত্র।

কোর্স ফি

তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগ ছাড়া প্রতিটি বিভাগের জন্য প্রথমে অফ লাইনে প্রায় ৫২১০ টাকা জমা দিতে হবে। বাকি টাকা চূড়ান্ত পর্যায় ভর্তির সময় দিতে হবে। তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে প্রথমে প্রায় ৩০,৩৬০টাকা জমা দিতে হবে। এবং বাকি টাকা চূড়ান্ত পর্যায় ভর্তির সময় দিতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.